বাংলাদেশ, শনিবার, ১১ই জুলাই, ২০২০ ইং, ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বেসামরিক বিমান পরিবহণ ও পর্যটন মন্ত্রীর কাছে শিল্পপতি খলিলুর রহমানের আবেদন

চট্টগ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর-ব্যাংকক-হংকং-মালয়েশিয়া-চায়না-জাপান-কোরিয়া ও ভারতের চেন্নাই-দিল্লি রুটে ফ্লাইট চালুর দাবী

চট্টগ্রাম থেকে সিঙ্গাপুর-ব্যাংকক-হংকং-মালয়েশিয়া-চায়না-জাপান-কোরিয়া ও ভারতের চেন্নাই-দিল্লি রুটে ফ্লাইট চালুর দাবী করেছেন শিল্পপতি খলিলুর রহমান। এক আবেদনে আজ তিনি নিম্নোক্ত যুক্তিগুলো তুলে ধরেন।তিনি আবেদন বলেন, দেশের রেলওয়ে ও নৌ-পরিবহন, বিআইডবিউটিএ, সড়ক পরিবহনে বিআরটিসি, বিদ্যুৎ বিভাগ, ওয়াসা, টেলিফোন সংস্থা ইত্যাদির মতো বিমান পরিবহন সংস্থার সেবা পাওয়া দেশের সকল বিভাগের জনগনের অধিকার রয়েছে ।

তিনি আরো বলেন, বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামকে দেশের অর্থনীতির প্রাণকেন্দ্র বলা হয়। যেখানে গড়ে উঠেছে সরকারী – বেসরকারী বড় কয়েকটি ইপিজেড ও ইকোনমিক জোন, নির্মানাধীন অবস্থায় রয়েছে মিরসরাই ও আনোয়ারা ইকোনমিক জোন, দেশের প্রথম বঙ্গবন্ধু টানেল  যা নির্মান হলে এ অঞ্চলে শিল্প এলাকার সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাবে। আরও উল্লেখ্য যে ইকোনমিক জোন এবং ইপিজেড গুলোর সকল কর্মকান্ডের সাথে চায়না, সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, হংকং অর্থাৎ দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের সাথে যোগাযোগের প্রয়োজনীয়তা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। অথচ চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিণ-পূর্ব দিকের যোগাযোগের ক্ষেত্রে বিমান পরিবহনের কোন ব্যবস্থা নেই। চট্টগ্রাম থেকে সরাসরি সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক, চায়না, মালয়েশিয়ায় যাওয়ার সুযোগ বা ওই দিক থেকে সরাসরি চট্টগ্রামে আসার সুযোগ থাকলে বাংলাদেশের একমাত্র বাণিজ্যিক রাজধানী বন্দর নগরী চট্টগ্রাম, তথা ইকোনমিক জোন সমূহে নতুন বৈদেশিক বিনিয়োগ প্রবাহ বেড়ে দেশের শিল্পায়ন, কর্মসংস্থান ও রপ্তানি আরও বৃদ্ধি পাবে।

আমরা মনে করি যে, জনগন রাষ্ট্রীয় সংস্থাগুলির সেবা পাবার অধিকার রাখে। যেমন, ঢাকা-চট্টগ্রাম রেলপথে প্রতিমাসে লাভ বৈ কোন মাসে ক্ষতি হলেও ঢাকা- চট্টগ্রাম রেল পরিবহন বন্ধ করা যাবে না। অনুরুপ বিবেচনায় চট্টগ্রাম থেকে দক্ষিন পূর্ব এশিয়ার পরিবহনে বাংলাদেশ বিমানের লাভ কম বেশি হলেও দেশের শিল্পায়ন তথা কর্মসংস্থান ও জনস্বার্থে চট্টগ্রাম থেকে বাংলাদেশ বিমানের পূর্বমূখী বিষয়ে বর্ণিত রুটে অতি সত্ত¡র ফ্লাইট চালুকরন অত্যাবশ্যক বলে আমরা মনে করি। তাই (১) চট্টগ্রাম থেকে অন্তত একদিন অন্তর ব্যাংকক-সিঙ্গাপুর-মালয়েশিয়া-হংকং-চায়না-জাপান-কোরিয়া রোডে অতিসত্ত¡র বিমান পরিবহনে সিডিউল গ্রহন করার জন্য নির্দেশ দানে আপনার নিকট বিনীত অনুরোধ করছি।

(২) যেহেতু চট্টগ্রাম থেকে বহু লোক চিকিৎসা ও ব্যবসায়িক কারনে ভারতের চেন্নাই ও দিল্লি যাতায়াত করছে, তাই এ পথে সপ্তাহে অন্তত ২ দিন চট্টগ্রাম-–কলকাতা রুটের পাশাপাশি সপ্তাহে আরও ২ দিন চট্টগ্রাম- চেন্নাই -দিল্লি রুটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট সিডিউল চালু করার অনুরোধ জানাচ্ছি।

 

শেয়ার করুনঃ

আরো খবর

Leave a Reply