বাংলাদেশ, শনিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ২রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

অধিভুক্তি বাতিলের দাবিতে অনড় ঢাবি শিক্ষার্থীরা, ক্লাসে তালা না থাকলেও অধিকাংশ ডিপার্টমেন্টের ক্লাস বর্জন

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিলের আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন আন্দোলনকারীরা। আজ বুধবার(২৪ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল লাইব্রেরীর সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন আন্দোলনকারীরা। আন্দোলনকারীদের মুখপাত্র শাকিল মিয়া বলেন, আমাদের দাবী হচ্ছে সাত কলেজের অধিভুক্তি বাতিল। আমরা আমাদের দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবো। তিনি আরো বলেন, আমাদের দাবী যদি না মানা হয় এবং আবার যদি কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটে তাহলে সাধারণ শিক্ষার্থীরা তার সমুচিত জবাব দেবে। আন্দোলনকারী আকরাম হোসেন বলেন, ‘ঢাবি আদেশ ১৯৭৩ অনুযায়ী বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট চাইলে অধিভুক্তি বাতিল করতে পারে এবং আমরা এজন্যই আন্দোলন করছি। আমাদের এ আন্দোলন কর্মসূচি ছিল সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণ। কিন্তু গতকাল ছাত্রলীগ আমাদের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে হামলা চালিয়েছে। নাহিদ ইসলাম নামে আন্দোলনকারীদের আরেক নেতা বলেন, আমরা প্রথমেই বলেছিলাম আমরা এই আন্দোলনে ডাকসুর সকলকে দেখতে চাই। ডাকসু নির্বাচনে ছাত্রলীগসহ সকল প্যানেলের ইস্তেহারে ছিল অধিভুক্ত সাত কলেজের ব্যাপারে তারা প্রশাসনের সাথে কথা বলবে কিন্তু ডাকসু নির্বাচনের এতদিন পরও এ ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। তারপর আমরা ডাকসু বরাবর স্বারকলিপি দিলাম এবং ডাকসুর ভিপি বরাবর স্বারক লিপি দিলাম কিন্তু তাতে কোনো কাজ হলো না তখন আমরা বাধ্য হয়ে এ আন্দোলন শুরু করলাম। আমরা গত তিনদিন ধরে আমাদের তালা লাগানো কর্মসূচি গ্রহণ করেছি এতে শিক্ষার্থীদের শতঃস্ফুত অংশগ্রহণ দেখতে পেয়েছি । তিনি আরো বলেন, গতকাল রেজিস্ট্রার বিল্ডিং এ আমরা যখন অবস্থান কর্মসূচি পালন করছিলাম তখন সেখানে শোভন, রাব্বানী ও সাদ্দামের নেতৃত্বে হামলা চালায় ছাত্রলীগ। তালা লাগাও কর্মসূচির ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন, তালা লাগাউক আর না লাগাউক শিক্ষার্থীরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ক্লাস পরীক্ষা বর্জন করেছে। তারা বলেন, আমরা প্রথমে শান্তিপূর্ণভাবে স্মারকলিপি প্রদান এবং বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচি পালন করেছি কিন্তু প্রশাসন এ ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি, তাই আমরা বাধ্য হয়ে এ কর্মসূচি গ্রহণ করেছি। সংবাদ সম্মেলন শেষে সেন্ট্রাল লাইব্রেরীর সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন আন্দোলনকারীরা। বিক্ষোভ মিছিলটি পুরো ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে পুনরায় সেন্ট্রাল লাইব্রেরীর সামনে এসে শেষ হয়।

আরো খবর

Leave a Reply