বাংলাদেশ, শনিবার, ১৭ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ২রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

কোটা নেতা এখন চড়ে রাব্বানীর প্রাইভেট কারে !

রাজনীতি ডেক্স

ছাত্রলীগের সাথে সক্রিয় রাজনীতি না করেও এবং পূর্বে ছাত্রলীগে কোনো পদ না থাকা সত্ত্বেও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ দপ্তর সম্পাদক পদ পেয়েছেন মাহমুদ আব্দুল্লাহ বিন মুনশি। এখন তিনি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর গাড়িতে ঘুরে বেড়ান। জানা গেছে, মাহমুদ আব্দুল্লাহ বিন মুনশি ছাত্রলীগের সক্রিয় কোনো রাজনীতি করতেন না। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিবেটিং সোসাইটির সাবেক সভাপতি ছিলেন, রাজনীতি করতেন না। ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতেন না। ছাত্রলীগে কোনো পদ না থাকা সত্ত্বেও এবং ছাত্রলীগের সাথে সক্রিয় রাজনীতি না করার পরেও সাবেক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আল আমিনের নিজের এলাকা ব্রাহ্মনবাড়িয়ার নবীনগরের সন্তান হওয়ায় তিনি এই পদটি পেয়েছেন বলে জানা গেছে। ওদিকে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর সাথে ঘনিষ্ঠতা থাকায় অন্য ছাত্রলীগ নেতাদের বঞ্চিত করে মাত্র দু মাসের রাজনীতিতে এই পদটি ভাগিয়ে নিয়েছেন বলে জানা গেছে। ওদিকে মাহমুদ আব্দুল্লাহ বিন মুনশির বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে তিনি ২০১৮ সালে কোটা সংস্কার আন্দোলন চলার সময় সরকারকে বিপদে ফেলতে কোটা সংস্কার আন্দোলনে সক্রিয় ভূমিকা রাখেন। এমনকি তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের কোটা সংস্কার আন্দোলনের সংগঠকও ছিলেন। একটি সূত্রেও জানা গেছে, ছাত্রলীগের বিতর্কিত নেতাদের তালিকায় তার নাম রয়েছে।

তিনি তার পদের ক্ষমতা ব্যবহার করে অনেক ত্যাগী সিনিয়র নেতাদের সাথে দুর্ব্যবহার করেন বলে জানা গেছে। এমন বিতর্কিত একজনকে ছাত্রলীগের পদে আসীন করতে সহযোগিতা করলেন কেন তা জানতে এইচ এম আল আমিনকে একাধিকবার ফোন করলেও তিনি রিসিভ করেন নি। এ বিষয়ে কথা বলতে ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকেও একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।

আরো খবর

Leave a Reply