বাংলাদেশ, শুক্রবার, ৬ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ট্রাম্পের সৌদি সফরের আগে রিয়াদে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদকে লক্ষ্য করে একটি দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে ইয়েমেনের সেনাবাহিনী ও হুথি আনসারুল্লাহ যোদ্ধারা। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিয়াদ সফর শুরু হওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে এই ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হল।

ইয়েমেনের আল-মাসিরা টেলিভিশন জানিয়েছে, আনসারুল্লাহ যোদ্ধাদের সমর্থনপুষ্ট সেনাবাহিনী শুক্রবার রাতে রিয়াদকে লক্ষ্য করে দেশে তৈরি বোরকান-২ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে।

ইয়েমেনের সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে বলেছে, এ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপের মাধ্যমে আগ্রাসী শক্তিকে স্পষ্ট করে এই বার্তা দেয়া হয়েছে যে, আমরা আগ্রাসনের জবাব দেয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছি।  তবে ক্ষেপণাস্ত্রটি কোথায় আঘাত হেনেছে বা সম্ভাব্য ক্ষয়ক্ষতি সম্পর্কে বিবৃতিতে কিছু জানানো হয়নি।

ওদিকে সৌদি সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা রিয়াদ থেকে ১৮০ কিলোমিটার পশ্চিমে রাজধানীর দিকে ধাবমান একটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্ত করে সেটিকে ধ্বংস করে দিয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রটি ইয়েমেন থেকে নিক্ষেপ করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে সৌদি বাহিনী।ট্রাম্পের সৌদি সফরের আগে রিয়াদে ইয়েমেনের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা-বোরকান-২ ক্ষেপণাস্ত্র

এর আগে গত ১৮ মার্চ ইয়েমেনের সেনাবাহিনী ঘোষণা করেছিল, তাদের নিক্ষিপ্ত একটি বোরকান-২ ক্ষেপণাস্ত্র সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদের অদূরে কিং সালমান বিমান ঘাঁটিতে আঘাত হেনেছে।  তারও আগে ২০১৬ সালের ২ সেপ্টেম্বর ইয়েমেনের সেনাবাহিনী সৌদি আরবের তায়েফ শহরে আগ্রাসী বাহিনীর একটি ঘাঁটিতে একই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছিল।

সৌদি আরবের বর্বরোচিত বিমান হামলার জবাবে ইয়েমেনের সেনাবাহিনী এ পর্যন্ত আগ্রাসী বাহিনীর বিভিন্ন লক্ষ্যবস্তুতে শতাধিক ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। এতে সৌদি সেনাদের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।  দারিদ্র পীড়িত ইয়েমেনের নিরীহ জনগোষ্ঠীর ওপর ২০১৫ সালের মার্চ মাস থেকে আগ্রাসন শুরু করেছে সৌদি আরব। এতে এখন পর্যন্ত ১১ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে।

আরো খবর

Leave a Reply

Close