বাংলাদেশ, বুধবার, ১৮ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, ৩রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

আনোয়ারায় সার কারখানা থেকে নির্গত এমোনিয়ার বিষাক্ত পানি পান করে ৪টি গবাদি পশুর মৃত্যু

আনোয়ারা উপজেলার রাঙ্গাদিয়ায় অবস্থিত ডিএপি ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড থেকে নির্গত এমোনিয়ার বিষাক্ত পানি খেয়ে গত ১২মে ৪ টি গবাদি পশু মৃত্যু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে।এতে পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কার পাশাপাশি ক্ষোভ প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী। সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, রাঙ্গাদিয়াতে সিউএফএল ও ডিএপিএফসিএল কোম্পানি নামে দুটি সার কারখানা রয়েছে। আগে এর পাশে ছিল বসুন্ধরার একটি প্রজেক্ট ঘোনা,কিন্তু বর্তমানে বসুন্ধরার প্রজেক্টগুলো সরকারি পিডিবির অধীনে রয়েছে বলে জানা যায়। আর সেই বসুন্ধরা প্রজেক্টে প্রতিদিন এলাকার স্থানীয়দের শতাধিক গরু ও মহিষ ঘাসপাতা খেতে বিচরণ করে,সেই গবাদিপশু গুলো পানি পান করে থাকে সার কারখানার পাশ ঘেঁষে বয়ে যাওয়া পানি চলাচল পথ থেকে। এই পথ দিয়ে সিউএফএল (চিটাগাং ইউরিয়া ফার্টিলাইজার লিমিটেড) ও ডিএপিএফসিএল কোম্পানির সার কারখানার এমোনিয়ার বিষাক্ত বর্জ্য পানি প্রবাহিত হয়। গরমের তীব্রতায় সেই বিষাক্ত পানি খেয়ে গবাদিপশু গুলো মারা গেছে এবং আরো অনেক গরু ও মহিষ অসুস্থ হয়ে পড়েছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায় সার কারখানার বর্জ্য পানিগুলো ছাড়লে প্রত্যেকবার পতাকা উত্তোলন ও এলাকায় মাইকিং করে আগে জানানো হতো কিন্তু এবার তা করা হয়নি। এতে তাদের অনেক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে,তারা তাদের ক্ষতিপূরণের দাবী জানান। ক্ষতিগ্রস্তরা হলেন- মোঃ আলী,ফারুক, বাদশা,জহির,সালামাত আলী,জাহেদ,ছৈয়দ ও আবছার। এ ব্যাপারে ডিএপি সার কাখানার এমডি মুনিরুল ইসলামের কাছে এ সম্পর্কে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি তা অস্বীকার করেন।

আরো খবর

Leave a Reply