বাংলাদেশ, রবিবার, ১৮ই আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চট্টগ্রামে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত

 

চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ বোস্তামী থানাধীন হিলভিউ আবাসিক এলাকায় বন্ধুর ছুরিকাঘাতে মো. শাহাদাত হোসেন (২৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে নগরীর পাঁচলাইশ থানার হিলভিউ আবাসিক এলাকার হামজারবাগ ব্যাংক কলোনির সামনে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক বলেন, নিহত শাহাদাতের সঙ্গে ফরহাদ নামের এক যুবকের বন্ধুত্ব ছিল। তাদের বাসাও হিলভিউ এলাকায় কাছাকাছি। দুই বন্ধুর মধ্যে দুপুরে কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে শাহাদাতকে ছুরিকাঘাত করে ফরহাদ। ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়। ঘাতক ফরহাদকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (উত্তর) বিজয় বসাক।

শাহাদাত পেশায় গাড়িচালক বলে জানিয়েছেন পাঁচলাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া বলেন, ‘ঘটনাস্থলে এসে জেনেছি- শাহাদাতের সঙ্গে আরেক যুবকের কথা কাটাকাটি হয়েছিল।

এর একপর্যায়ে শাহাদাতকে ছুরিকাঘাত করে ওই যুবক পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান।’

চমেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির নায়ের শীলব্রত বড়ুয়া বলেন, দুপুর দেড়টার দিকে রক্তাক্ত অবস্থায় শাহাদাতকে হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেছেন।

জানা গেছে, নিহত শাহাদাত চট্টগ্রাম বন বিভাগের এক কর্মকর্তার ব্যক্তিগত গাড়ি চালান। পাশাপাশি তিনি গাড়ি চালানোরও প্রশিক্ষণ দেন। বিবাহিত শাহাদাতের বাবা’র হামজারবাগ এলাকায় একটি লেপ-তোষকের দোকান আছে। মা চাকরিজীবী। তারা চার ভাই, তিন বোন।

শাহাদাতের বোন হাফিজা আক্তার জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে শাহাদাত বাসায় যান। কিছুক্ষণ পর আবার বেরিয়ে যান। ১টার দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে হাফিজা দেখেন- তার ভাই রক্তাক্ত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে আছেন।

দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান হাফিজা। ঘটনাস্থলে লোকজনের কাছে হাফিজা শুনেছেন- ফরহাদ নামে স্থানীয় বখাটে সন্ত্রাসী শাহাদাতকে ছুরিকাঘাত করেছে।

হাফিজা আরও জানান, ফরহাদ হিলভিউ দুই নম্বর আবাসিক এলাকার এনজিও কর্মী ময়নার ছেলে। তাদের বাসা ওই এলাকার মন্টু সাহেবের কলোনিতে।

আরো খবর

Leave a Reply