আনোয়ারা ডায়াবেটিক হাসপাতাল পরিচালনা পর্ষদ গঠিত

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২, ২০১৮)

আনোয়ারা ডায়াবেটিক হাসপাতাল কনফারেন্স হল রুমে ২৬ আগষ্ট রবিবার বিকাল ৪টায় ফাউণ্ডার, ডোনার এসোসিয়েশন ও স্বেচ্ছাসেবকদের এক সমম্বয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।এই সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম. আলী হোসেন। ১ম পর্বের এই সভাটি  পরিচালনা করেন প্রতিষ্ঠাতা অর্থ সম্পাদক মাষ্টার মুহাম্মদ আবদুল জব্বার।ফাউন্ডার মেম্বার আবদুল মান্নান হাসপাতালের প্রতিষ্টাতাদের পক্ষে বক্তব্য রাখেন।

প্রতিষ্ঠাতা  সভাপতি এম. আলী হোসেন সভাপতির বক্তব্য তিনি বলেন,  হাসপাতালটি যাতে গণমানুষের সেবা দিতে সকলের কাছে গ্রহণযোগ্যতা লাভ করতে পারে সে লক্ষ্যে আমরা এগুচ্ছি।সমিতি ও হাসপাতাল প্রতিষ্টার ইতিহাস তুলে ধরে ফাউণ্ডারদের অসামান্য অবদানের কথা স্মরণ করে দিয়ে তিনি বলেন, বারডেম ও চট্টগ্রাম ডায়াবেটিক হাসপাতাল যেই আদলে পরিচালিত হয় আমাদেরও সে লক্ষ্যে কাজ করতে হবে। দাতাদের সম্মান দিতে হবে।বড় মন নিয়ে দাতাদেরও সেবা দেবার পথ উমুক্ত করে দিয়ে পরিচালনা পর্যদে জায়গা করে দিতে হবে। আগামীতে গ্রহণযোগ্য ও নির্বাচিত প্রতিনিধিরা যাতে হাসপাতাল পরিচালনা করতে পারে সে ক্ষেত্র তৈরী করে দেয়া প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে আমার নৈতিক দায়িত্ব রয়েছে।আজকে ফাউণ্ডার, দাতা ও স্বেচ্ছাসেবকদের সমম্বয়ে পরিচালনা পর্যদ গঠন এটি একটি ঐতিহাসিক ঘটনা ।মেয়াদের ২দিন আগে আরো একটি পরিচালনা পর্যদ গঠন এটি মাইলফলক হিসেবে কাজ করবে।সভাপতি তাঁর বক্তব্য হাসপাতালে সেবার মান বৃদ্ধি, উন্নয়ন ও তহবিল গঠনের জন্য ফাউন্ডারদের মধ্যে বিগত কার্যকরী পরিষদে যারা অবদান রেখেছেন তাদের সাথে নিবেদিত দাতা সদস্য ও স্বেচ্ছাসেবকদের মূল্যায়ন করে যৌথভাবে অন্তবর্তীকালীন পরিচালনা পর্যদ গঠনের তাগিদ দেন।এই সভায় সভাপতি চলিত কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন কমিটি গঠনের আহবান জানিয়ে সভার সমাপ্তি ঘোষনা করেন।

অন্তবর্তীকালীন পরিচালনা পর্যদ গঠনের লক্ষ্যে ১ম পর্বের সভা শেষে ২য় পর্বে আরো একটি যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।ওই সভায় ডোনার এসোসিয়েশনের আহবায়ক মাষ্টার আবুল হোসেন সভাপতিত্ব করেন। স্বেচ্ছাসেবক ও দাতা সদস্য কে. এম আবদুল্লাহ জনি পবিত্র কোরান করে সভার সূচনা করেন।এই সভায় বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এম. আলী হোসেন, ফাউন্ডার মাষ্টার আবদুল জব্বার , ফাউন্ডার আবদুল মান্নান, সপরিবা রের দাতা সদস্য আবুল কালাম, দাতা সদস্য আবদুল মান্নান, ইমতিয়াজ খালেক, কে. এম আবদুল্লাহ জনি  ও এস এম ছাদেক। মাননীয় ভুমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি মহোদয়কে প্রধান উপদেষ্ঠা মনোনয়ন দিয়ে ১১সদস্য বিশিষ্ঠ উপদেষ্ঠা পর্যদ করা হয়। সভায় প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি  এম. আলী হোসেনকে ১নম্বর সদস্য করে ফাউন্ডার মেম্বার কাশেম খান, এম. মুনির চৌধুরী, আবদুল জব্বার, আবদুল মান্নান ও নুরুল আলমকে অন্তবর্তিকালীন পর্যদে অন্তর্ভুক্ত করে ৭ জন ডোনার ও ২জন স্বেচ্ছাসেবককে নিয়ে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট্য অন্তবর্তিকালীন পরিষদ গঠন করা হয়।এই পরিষদ আগামী ৩১ ডিসেম্বর ১৮ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবেন।হাসপাতালের সেবার দিন ও খাত বৃদ্ধি, ফাণ্ড সংগ্রহ ও উন্নয়নের জন্য এই পর্যদ নিরলসভাবে কাজ করবেন।এই লক্ষ্যে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট কমিটিতে দাতা সদস্য মাষ্টার আবুল হোসেন আহবায়ক, আবুল কালাম যুগ্ন আহবায়ক ও  ফাউন্ডার আবদুল মান্নানকে সদস্য সচিব মনোনিত করা হয়।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password