বাংলাদেশ, শনিবার, ২৩শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, ৯ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

চেয়ারম্যান মোশাদ হোসেন চৌধুরীর বিরুদ্ধে দূর্নীতির অভিযোগ

সাতকানিয়ার ছদাহা ইউপি চেয়ারম্যান মোশাদ হোসেনের বিরুদ্ধে দূর্নীতি ও অনিয়মের গুরুতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রকল্পের পুরো কাজ না করে ও প্রকল্পের সভাপতির  সই ছাড়াই সমুদয় টাকা আত্মসাতের ঘটনা ঘটেছে ছদাহা ইউনিয়নে।নৌকা প্রতীকের ওই চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে  জামাত নেতা কর্মীদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে ক্ষমতাসীন দলকেও প্রশ্নবিদ্ধ করছে বলে অভিযোগও রয়েছে।

বেশ কয়েকটি প্রকল্পে একইরকম অনিয়ম, দূর্নীতি ও লুটপাঠ হয়েছে ।  মাঠ ভরাট, ভেড়ীবাঁধ নির্মাণ, ড্রেইন নির্মাণ, বন্য হাতির উপদ্রব থেকে ফসলী জমি রক্ষা, সোলার প্যানেল নির্মাণ, ইউপি অফিসকে আদালত ভবনে রুপান্তর, ব্রিক সলিং ইত্যাদি প্রকল্পগুলোর কাজে বরাদ্ধ ছিল।স্হানীয় ইউপি মেম্বার করিম ছিলেন কয়েকটি প্রকল্পের সভাপতি।এই বিষয়ে জানতে চাইলে  এই প্রতিনিধিকে মুঠোফোনে তিনি জানান, চেয়ারম্যান আমার সইও নেয়নি। একটি টাকারও কাজ হয়নি। কাজ হয়নি বলে আমি সই দেয়নি।সরকারের টাকার অপচয় ও লুটপাঠ হয়েছে। তদন্তপূর্বক বিহিত ব্যবস্হা নেয়া হোক। এই বিষয়ে স্হানীয় চেয়ারম্যান মোশাদ হোসেন বলেন, আমরা প্রকল্প অনুমোদনকারী।সই দিয়েছে কিনা জানি না। নিউজ পাবলিশ না করে অভিযোগকারীকে আমার সামনে বসিয়ে দেবার অনুরোধ করেন তিনি।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন তৃণমূল আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা বলেন আমাদের দলের  নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান হয়েও নৌকা সমর্থকদের অবহেলা করে থাকেন তিনি।জামাত শিবিরদের সাথে তারঁ গভীর সম্পর্ক রয়েছে।সে জামাতদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিয়ে থাকে।সরকারের উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত সংস্হা ও প্রকল্প টাকা আত্মসাতের ব্যাপারে দূদক অনুসন্ধান চালালে রিপোর্টের বাস্তবতা খুজেঁ পাওয়া যাবে।

 

আরো খবর

Leave a Reply