হারিয়ে গেছে ঐতিহ্যবাহী ফৌজদারহাট গরু-ছাগলের বাজার

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১, ২০১৭)

সীতাকুণ্ড সৈয়দপুর থেকে সলিমপুর পর্যন্ত প্রত্যেক ইউনিয়নের অন্তত একটি করে বসত গরু ছাগলের হাট । তার মধ্যে একটি হল ঐতিহ্যবাহী ফৌজদারহাট বাজার। সীতাকুণ্ডের দূরদূরান্তর থেকে বিক্রেতারা বিক্রি করার জন্য গরু ছাগল এবং ক্রেতারা কিনার জন্য ভিড় জমাতো। কুরবানী ঈদে সপ্তাহে শনিবার ,মঙ্গলবার , বৃহস্পতিবার এই তিনদিন হাট বসত । কিন্তু ২ বছর ধরে তা হারিয়ে গেছে। এই বাজার পরিচালনা করত বিদ্যালয় পরিষদ। বাজার বন্ধ হওয়ার কারন জানতে চাইলে বিদ্যালয়ের সভাপতি কায়সারুল আলম জানান, ফৌজদারহাট কে এম উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্টাকালীন হতে জমজমাট বসত গরু ছাগলের হাট। বর্তমানে কিছু কিছু ব্যবসায়ী তাদের নিজস্ব অর্থায়নে গরু কিনে পথে পথে বিক্রি করছে। তাই ক্রেতারা কিনতে আসেনা নির্দিষ্ট বাজারে। যার কারনে ২০১৫ সালে হাট বসলেও জমে উঠেনি গরু ছাগল বিক্রয়, ফলে লোকসান গুনতে হয়েছে অনেক টাকা। তাই এই দুইবছর মোটেই হাট বসেনি। অন্যদিকে স্থানীয় মেম্বার মোস্তাকিম আরজু জানান, উপজেলা পরিষদ পথে পথে গরু বিক্রয় করার সুযোগ দিবে আবার বাজারেও অনুমতি দিবে এভাবে হলে একটি হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ফৌজদারহাট বাজারটা এমনটায় হল। তিনি বলেন এইবছর করার উদ্যোগ নিলেও প্রশাসনের অনুমতি আর কাগজপত্র জমা দিতে বিলম্ব হওয়ায় সলিমপুরবাসীর আশা পূরণ হয়নি। কিন্তু তিনি আশ্বাস দিয়ে বলেন ,যদি পথে পথে গরু বিক্রি করা বন্ধ হয় তাহলে আগামী বছর থেকে ফৌজদারহাটের ঐতিহ্য ফিরে আনতে আপ্রাণ চেষ্টা চালাবে। ফৌজদারহাট শুধু গরু -ছাগলের হাট জমজমাট ছিল না নিত্যদিনের পণ্য বাজারেও জমজমাট ছিল। কিন্তু ২টায় আস্তে আস্তে হারিয়ে যাওয়ার পথে। ফৌজদারহাটের ঐতিহ্য রক্ষা করতে উপজেলা পরিষদ, চেয়ারম্যান, মেম্বারগনের কাছে দাবি জানান এলাকাবাসী।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password