এক ব্যক্তির স্বার্থের আঘাতে দেশ পিছিয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

  প্রিন্ট
(Last Updated On: ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০১৭)
 প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শুধু এক ব্যক্তির জন্য পদ্মাসেতু নিয়ে বিশ্বব্যাংক জটিলতা তৈরি করেছে। তা না হলে দেশ আরো এগিয়ে যেত।
মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) নিয়মিত বৈঠকের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। বৈঠকের শুরুতেই প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র হয়েছে।
তিনি কারো নাম উল্লেখ না করে বলেন, বিশ্বব্যাংক আমাদের মিথ্যা একটা অভিযোগ দিয়েছিলো এবং তাদের এই মিথ্যা অভিযোগে আমাদের একজন সচিবকে অযথা একটা বছর জেল খাটতে হয়েছে। এর থেকে লজ্জাজনক আর কিছু হয় না। একটা মানুষের জীবনের মূল্যবান সময় নষ্ট করল। আমি মনে করি, এর পেছনে অনেকগুলো কারণ আছে। একটা ব্যক্তির স্বার্থের আঘাত লাগল বলে এটি করা হয়েছে। দেশের এত বড় একটা মূল্যবান প্রকল্প যার ফলে আমার দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের সার্বিক, আর্থ-সামাজিক উন্নতি হতে পারত। আরো দুবছর আগেই এই পদ্মাসেতু নির্মাণ হলে ওই অঞ্চলের মানুষেরা সুফল পেতো। এর মাধ্যমে আমাদের জিডিপি আরো এক ভাগ বেশি হতে পারতো।
সভা শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সাংবাদিকদের জানান, প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে বলেছেন, মিথ্য অভিযোগ দিয়ে ঘড়যন্ত্র করা হয়েছিল। মিথ্যা অভিযোগের কারণে একজন সচিবকে জেল খাটতে হয়। মিথ্যা অভিযোগের কারণে দেশ পিছিয়েছে। ব্যক্তি বিশেষের স্বার্থে আঘাত লাগায় তা হয়েছে। গত অর্থবছর আমরা ৭ দশমিক ১১ ভাগ জিডিপি অর্জন করেছি। নির্ধারিত সময়ে পদ্মা সেতু বাস্তবায়িত হলে জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৮ ভাগে উন্নীত করা সম্ভব হতো। তিনি জানান, গতকালকের একনেক সভাটি বর্তমান সরকারের চলতি মেয়াদে শততম সভা । একশতটি সভায় মোট ৭৩৩টি প্রকল্প অনুমোদিত হয়েছে। অনুমোদিত প্রকল্পগুলোর জন্য  প্রাক্কলিত ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে ৭ লাখ ৬৩ হাজার ৩ শত ৯কোটি ৭৫ লাখ টাকা। মন্ত্রী জানান প্রধানমন্ত্রী প্রকল্প প্রণয়ন ও বাস্তবায়নের সাথে সম্পৃক্ত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছন। প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোলমডেল উল্লেখ করেছেন।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password