বাংলাদেশ, সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

মুস্তাক মুহাম্মদ এর মে মাসের কবিতা-১

 

এই পৃথিবী আমাদের

আমাদের ঘামে রসদ পায় পৃথিবী।

এসো আমার ভায়েরা, আমরা

আরো সুন্দর করে সাজায় আমাদের পৃথিবীটাকে।

আমরা যত্নশীল হয় আমাদের আমাদের

রক্ত পানি করা এই মাটির জন্য।

শত্রুরা আমাদের এই ফুলের বাগানকে

বোমা, মিসাইল খেত বানাতে চায়!

আমরা তা হতে দিতে পারি না-

এসো আমরা একত্রি হয়।

আমাদের গড়া এই  পৃথিবী;

নই উপরতলারদের কায়িক পরিশ্রমে।

এসো আমরা দরদী হোই-

এই পৃথিবী আমাদের।

তারিখ: ২৯/০৪/২০১৭, বাঁকড়া পাঁচপোতা, যশোর।

 

আমরা উপভোগ করব

আমা্র শক্তি- পরিশ্রমে এই ফুলের বাগান

আমরা গড়ি এই পৃথিবী

আমরা ফেলনা নই।

এখানে কোনে দানবের রাজত্ব চলবে না।

আমাদের শোষণ করে

আমাদের হাড়ে সুর তোলার দিন শেষ।

এসো আমার ভায়েরা,

আপন শক্তিতেই  আমরা রুখে দাড়াবো,

প্রভুত্ব নয় আমরা আমাদের ন্যার্য দাবীর

কথা বলতে শিখেছি।

শুধু পেটে ভাতে নয়

আমরা উপভোগ করবো পৃথিবীটাকে ।

শুধু ধনীর দুলালীর ফরমায়েস খাটবো না

অথবা স্বপ্ন দেখবো না তার বিলাসী খেয়াল দেখে,

ক্রীড়ানক হব না।

আমরা চালায় পৃথিবী।

আমরা উপভোগ করবো পৃথিবীটাকে।

তারিখ: ২৯/০৪/২০১৭, বাঁকড়া পাঁচপোতা, যশোর।

আমোদের বিজয় সংগীত

এসো শ্রমিক ভায়েরা

সময় হয়েছে জাগার

বিশ্ব হয়েছে এক

তফাৎ কি তোমার আমার।

শোষণের দিন শেষ

বাজে সাম্যর বীণ

দিকে দিকে আজ

আমাদের বিজয় সংগীত।

তারিখ: ২৯/০৪/২০১৭, বাঁকড়া পাঁচপোতা, যশোর।

শোষণের কি শেষ হবে না?

শিখাগো হে মার্কেটের দিন বুঝি

আজও শেষ হলো না!

আমাদের শ্রম  শোষণ করছে – উন্নতরা;

ক পয়সা বা দেয় ! দিন রাত পরবাসে খাটি,

মাস শেসে মুজুরি এখাতে ওখাতে চলে যায়।

বছর বছর পারমিটের নামে টাকা গচ্ছা

পুলিশের হয়রানি।

আমাকে শোষণ করছে –

সামনে মুলো ঝুলায়ে।

মা পরবাসে আছি –

রাত দিন পরিশ্রম;

তবু নাকি কাজে ফাঁকি দিই –

মাস শেষে মাইনে কাটা যায়!

এই শোষনের কি শেষ হবে না? মা!

তারিখ: ২৯/০৪/২০১৭, বাঁকড়া পাঁচপোতা, যশোর।

 

আরো খবর

Leave a Reply