বাংলাদেশ, সোমবার, ১৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং, ৬ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ।

সিইউএফএল সড়কের জমিতে দোকান নির্মাণ

আনোয়ারা প্রতিনিধি

আনোয়ারা উপজেলার চাতরী চৌমুহনী বাজার থেকে শাহাদত নগর পর্যন্ত সিইউএফএল সড়কের দুই পাশের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পর আবারও দখলে নেমেছে প্রভাবশালী চক্র। স্থানীয় প্রভাবশালী মহল সিইউএফএল কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে লিজ নেওয়ার গুজব ছড়িয়ে ফের অবৈধ দখল শুরু করেছে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। চক্রটির কেউ সড়কের জায়গায় ইট বালু রেখে বিক্রি করছে আবার কেউ বাঁশ বেড়া দিয়ে দোকানপাট নির্মাণ করে দখলে নিয়েছে। এছাড়া স্থানীয় প্রভাবশালী নবাব খাঁনের প্রভাব খাটিয়ে কয়েকজন ব্যাক্তি কাফকো সেন্টার এলাকায় সড়কের জমি দখল করে সেখানে অবৈধ দোকান নির্মাণের পাঁয়তারা করছে।

সূত্র জানায়, উপজেলার বন্দর কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় সিইউএফএল সড়কের প্রায় ১০ শতক জমি অবৈধ দখলে নিয়ে ১২টি দোকান নির্মাণ করেন জনৈক নবাব খাঁন। ২০০৭ সালে তৎকালীন তত্ত্বাবধায়ক সরকার এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে জায়গাটি জনসাধারণের জন্য উম্মুক্ত করে। দীর্ঘদিন পর আবারও জায়গাটি অবৈধ দখলে নিয়ে দোকানঘর নির্মাণের অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে। অবৈধ দখলদারদের কারণে এ সড়কের জায়গা যেমন বেহাত হচ্ছে তেমনি জনগণের ভোগান্তিও বেড়ে চলেছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে চরম হতাশা বিরাজ করছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক ব্যবসায়ী অভিযোগ করেন,সড়কের চাতরী চৌমুহনী থেকে শাহাদত নগর পর্যন্ত এলাকায় বসানো বেশিরভাগ দোকানপাট অবৈধ। স্থানীয় প্রভাবশালীরা যার যার মতে প্রায় শতাধিক দোকান নির্মাণ করে ভাড়ায় দিয়েছে। তবে অদৃশ্য কারণে সিইউএফএল কর্তৃপক্ষ নিরব ভূমিকা পালন করছে। স্থানীয় মোহাম্মদ ইদ্রিচ বলেন,বন্দর কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় জমি লিজ নেওয়ার গুজব ছড়িয়ে আবার স্থাপনা নির্মাণের পাঁয়তারা করছে একটি বাহিনী।

এদিকে, সিইউএফএল থেকে লিজ প্রক্রিয়ার কথা উল্লেখ করে আশরাফ নামে জনৈক ব্যক্তি অভিযোগ করেছেন বলে জানিয়েছেন বন্দর পুলিশ ফাঁড়ির আইসি নাজিম উদ্দিন। তবে লিজের বিষয়টি অস্বীকার করে সিইউএফএলের উপ-ব্যবস্থাপক (প্রশাসন) আমিরুল হক বলেন,১/১১ সময় সড়কের এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পর আবারও দখলে নিয়ে দোকানপাট নির্মাণ করেছে স্থানীয়রা। জনবল সংকটসহ বিভিন্ন কারণে এসব উচ্ছেদ করা সম্ভব হয়নি। পরে এসব জায়গা চুক্তিভিত্তিক ভাড়া দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হলেও এ সংক্রান্ত কমিটির মত না থাকায় তা বন্ধ রাখা হয়।

এই বিভাগের আরো খবর

আরো খবর

Leave a Reply