দেশ আবৃত্তি সংগঠনের‘এসো হাত ধরি কবিতার’

  প্রিন্ট
(Last Updated On: নভেম্বর ২০, ২০১৮)

“অপসংস্কৃতির যুগে দেশীয় সংস্কৃতির চর্চায়”-এই প্রতিপাদ্য নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে চট্টগ্রামের শিল্পসংগঠনগুলোর অন্যতম স্বদেশ আবৃত্তি সংগঠন। সংগঠনটি প্রতিমাসে ‘এসো হাত ধরি কবিতার’ শীর্ষক একটি আবৃত্তিধারার আয়োজন করে থাকে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে গত ১৬ই নভেম্বর, রোজ শুক্রবার নগরীর জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে অনুষ্ঠিত হয় উক্ত আবৃত্তিধারার ৬ষ্ঠ পর্ব, যাতে এককভাবে আবৃত্তি পরিবেশন করেন সংগঠনটির সাংগঠনিক সম্পাদক মো. ফারুক হেসেন। অনুষ্ঠানটি সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় শিল্পকলা একাডেমীর আর্ট গ্যালারী ভবনে শুরু হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট কবি ও শিক্ষাবীদ এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডঃ হুসেইন কবির। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নগরীর জেলা শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম বাবু। এছাড়া বিশেষ অতিথি ছিলেন বিশিষ্ট কবি ও বিজয় ৭১ এর সভাপতি সজল চৌধুরী; সম্মিলিত আবৃত্তি জোট, চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক মো. মসরুর হোসেন এবং ডিজিটাল বাংলাদেশ পাবলিসিটি কাউন্সিলের সহ-সভাপতি মো. জসীম উদ্দীন চৌধুরী। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন স্বদেশ আবৃত্তি সংগঠন-এর সভাপতি মো. সেলিম ভূঁইয়া। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক রেহেনা পারভীন রীমা এবং সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো. সাদাব মান্নান চৌধুরী’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহ-সভাপতি মো. আব্দুল কাদের আরাফাত। অনুষ্ঠানটি প্রয়াত আবৃত্তিশিল্পী রণজিৎ রক্ষিত’কে উৎসর্গ করে এবং চট্টগ্রামের সম্ভাবনাময় কবিদের তুলে ধরার উদ্দেশ্য নিয়ে শিল্পী মো. ফারুক হোসেন আবৃত্তি করেন রাশেদ রউফ রচিত ‘আকাশলীনা’; সাইমন নজরুল রচিত ‘সুপ্রভাত প্রেমা’; বিশ্বজিৎ চৌধুরী রচিত ‘অপ্রেমের কবিতা’; মো. নুরুল আবসার রচিত ‘এক নিঃসঙ্গ রমণীকে’; নাজিমুদ্দীন শ্যামল রচিত ‘চিঠি লিখি নাই’; কমরুদ্দীন আহমেদ রচিত ‘ভাঁজনীতি’; সাইদুল আরেফীন রচিত ‘সভ্যতা তুমি কতদূর’; আখতারি ইসলাম রচিত ‘প্রেম’; মো. সঞ্জিত আলম রচিত ‘সুধাংশু যাবে না’; কার্তিক বিশ্বাস রচিত ‘বাবার জন্মদিন’; উত্তম কুমার আচার্য্য রচিত ‘একবার এখানে এসে দাঁড়াও’; শুভাশীষ শুভ রচিত ‘কাঁচের সংসার’; নাসিমা আক্তার মুক্তা রচিত ‘আমি খুব সাধারণ’; রেহানা মাহমুদ রচিত ‘তুমি নেই’; অরুণ শীল রচিত ‘এক ফোঁটা পবিত্র আগুন’; সঞ্জিত দে রচিত ‘বাড়ী’; মোস্তফা হায়দার রচিত ‘আমি খুব দুঃখিত’; আ. ফ. ম. মোদাচ্ছের আলী রচিত ‘অরুণ তরুণ মাশরাফি’; শাহীন মাহমুদ রচিত ‘সবিতার দু’চোখ’; রুমী চৌধুরী রচিত ‘যদি মন চায়, তবে চলে এসো’; রঞ্জন বণিক রচিত ‘নস্টালজিয়া’; সোমা মুৎসুদ্দী রচিত ‘অনিমেষের শেষ ট্রেন’; অমিত বড়ুয়া রচিত ‘পাহাড়ের কান্না দেখে’; ছালিমা খানম ইভা রচিত ‘শিবু মাঝির চুড়ি’; অভি ওসমান রচিত ‘কাব্যগাঁথা’; রমজান আলী মামুন রচিত ‘মাটিতে পায়ের ছাপ’; বিজন মজুমদার রচিত ‘আগামীর দ্রোহ’; আরিফ চৌধুরী রচিত ‘শূণ্যতায় জলের পাণ্ডুলিপি’; তাপস চক্রবর্তী রচিত ‘তবু ভালোবাসা হে দীর্ঘশ্বাস’; ফারুক হাসান রচিত ‘গাঁয়ের পথে’; অপু চৌধুরী রচিত ‘উপদেশ’; রাসেল মাহমুদ রচিত ‘তোমাকে খুঁজেছি মা’; সংগঠনের সহ-সভাপতি আব্দুল কাদের আরাফাত রচিত ‘পুরোনো দীর্ঘশ্বাস’ এবং শিল্পীর স্বরচিত ‘জেঠুর কলকাতা’ সহ মোট ৩৪টি কবিতা।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password