আওয়ামী লীগ যুগে যুগে অসাম্প্রদায়িকতাকে লালন করে চলেছে – সুজন

  প্রিন্ট
(Last Updated On: নভেম্বর ৭, ২০১৮)

 

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ যুগে যুগে অসাম্প্রদায়িকতাকে লালন পালন করে চলেছে বলে অভিমত প্রকাশ করেছেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন। তিনি ৬ নভেম্বর রাত ৮টায় দক্ষিণ নালাপাড়া সার্বজনীন শ্যামাপূজা উদযাপন পরিষদ আয়োজিত শ্যামাপূজার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।

মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি রানা বিশ্বাসের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা অমল মিত্র, পংকজ বৈদ্য সুজন, এডভোকেট শংকর চৌধুরী, প্রদ্যুত বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা আতাউল্ল্যাহ চৌধুরী, নগর যুবলীগের যুগ্ম-আহবায়ক মাহবুবুল হক সুমন, সাবেক কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সহ-সম্পাদক শওকত হোসাইন, মোরশেদ আলম, ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য এনামুল হক মিলন, এএসএম জাহিদ হোসেন, জাহেদ আহমেদ চৌধুরী, আসাদুজ্জামান মনি, পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক লায়ন প্রবীর দত্ত সাজু, শ্যামল দাশগুপ্ত, সাইফুল্লাহ আনসারী, স্বরূপ দত্ত রাজু, সরওয়ার্দী এলিন, জাহাঙ্গীর আলম, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ সহ-সম্পাদক রাজীব হাসান রাজন, নগর ছাত্রলীগ সভাপতি এম.ইমরান আহমেদ ইমু, সহ-সভাপতি আব্দুল খালেক, শেখ মহিউদ্দিন বাবু, শাহাদাত হোসেন ভুলু, রঞ্জন সাহা, রাজীব বিশ্বাস, জুয়েল মজুমদার প্রমূখ।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি খোরশেদ আলম সুজন বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ জন্ম থেকেই একটি অসাম্প্রদায়িক দল। একটি অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে সবসময়ই ধারন করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। ফলে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলে সকল ধর্মাবলম্বীরা উৎসব মূখর পরিবেশে তাদের ধর্মকর্ম পালন করে থাকে। বিগত শারদীয়া দূর্গোৎসবের স্বতঃস্ফুর্ততা তারই প্রমাণ বহন করে। বিপরীতে সাম্প্রদায়িক গোষ্টী বিএনপি জামাত যখনই ক্ষমতায় আসে তখনই দেশে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হাঙ্গামার সৃষ্টি করে। তাদের হিং¯্র থাবা থেকে সনাতনী নারী পুরুষ আবাল বৃদ্ধ কেউ রেহাই পায় না। তারা মন্দিরে মন্দিরে ভাংচুর লুটতরাজ এমনি অগ্নিসংযোগও করে থাকে। তাই ঐ সকল উগ্র সাম্প্রদায়িক গোষ্টীকে আগামী নির্বাচনে পরাজিত করে অসাম্প্রদায়িক সরকার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে যে কোন মূল্যে ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত করতে হবে। নৌকার বিজয়কে সুনিশ্চিত করতে হবে। তবেই সনাতনী সম্প্রদায়ের সকল প্রকার আশা আকাংখা পূরণ হবে। তিনি সনাতনী সম্প্রদায়কে ধর্মীয় রীতিনীতি পরিশুদ্ধভাবে মেনে চলার আহবান জানিয়ে বলেন প্রকৃত ধর্মাবলম্বীরা কখনো কোন প্রকার অন্যায় করে না কিংবা প্রশ্রয় ও দেয় না। প্রকৃত ধর্মকর্মের মাধ্যমে জগতের প্রকৃত সুখ লাভ সম্ভব।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password