একতরফা নির্বাচনের জন্য এ রায় কারসাজি

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: অক্টোবর ১১, ২০১৮)

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়ার রায়কে ‘স্টেট স্পনসরড জাজমেন্ট’ বা রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতার বিচার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী।
তিনি বলেন, বিএনপিকে পরিকল্পিতভাবে ধ্বংস করতেই সরকারের বিশেষ ব্যক্তির মনোবাঞ্চনা পূরণে এ রায়। রায়কে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, একতরফা নির্বাচন করার জন্য এ রায় একটি কারসাজি।
বৃহস্পতিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন।
রিজভী বলেন, ২১ আগস্ট বোমা হামলা মামলায় তারেক রহমানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের ফাঁসানোর জন্য রাষ্ট্রযন্ত্রকে কি নির্মমভাবে ব্যবহার করা হয়েছিল, সেই সম্পর্কে আপনাদের ইতোপূর্বে অবহিত করেছি। তিনি বলেন, হাত-পায়ের নখ তুলে নিয়ে শারীরিক নির্যাতনের মাধ্যমে সম্পূরক জবানবন্দি নেয়া হয়েছিল।
বিএনপির এ মুখপাত্রের ভাষ্য- মুফতি হান্নান দাবি করে বলেন, ব্যাপক নির্যাতন করে সিআইডির লিখিত কাগজে তার সই আদায় করা হয়েছে। বিএনপিসহ বিরোধী দলগুলোকে নিশ্চিহ্ন করার জন্যই কারও ইচ্ছা পূরনে এ রায় দেয়া হয়েছে বলে জানান রুহুল কবির রিজভী।
তিনি বলেন, তথ্যমতে এ পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন কারাগার থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে বিশেষ ক্ষমতায় প্রায় ৬ হাজারের মতো ভয়ঙ্কর আসামি ছেড়ে দেয়া হয়েছে। সুতরাং সরকার এবং সরকারনিয়ন্ত্রিত বিচার প্রক্রিয়া দুষ্টকে পালন করারই দায়িত্ব গ্রহণ করেছে।
‘যতদিন এ ভোটারবিহীন সরকার ক্ষমতায় থাকবে, ততদিন কেউ ন্যায়বিচার পাবে না বলেই জনগণ মনে করে’, বলেন রিজভী।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password