‘বাংলাদেশ-ভারতের সোনালী সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে’

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৮)

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষার বিষয়ে ভবিষ্যতেও দলমত নির্বিশেষে বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন. ভবিষ্যতেও বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতার মাধ্যমে দু দেশের সোনালী সম্পর্ক আরো দৃঢ় হবে। বিকেলে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিদ্যুৎ আমদানিসহ বিভিন্ন প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন দুদেশের সম্পর্কের সোনালী প্রতীক বলে উল্লেখ করেন নরেন্দ্র মোদী।

গণভবনে থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও নয়াদিল্লী থেকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যৌথ ভিডিও কনফারেন্সে বিভিন্ন প্রকল্প ও প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন। এসময় দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী, ভারত থেকে ৫০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ আমদানি কার্যক্রম উদ্বোধনের পাশাপাশি বাংলাদেশ রেলওয়ের কুলাউড়া-শাহবাজপুর সেকশন পুনর্বাসন ও আখাউড়া- আগরতলা ডুয়েজগেজ রেল প্রকল্পের নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন।

ভিডিও কনফারেন্সে পশ্চিমবঙ্গ থেকে যোগ দিয়েছিলেন সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী। জানান বাংলাদেশ ভালো থাকলে পশ্চিমবঙ্গ ভালো থাকে।

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি বলেন, ‘ইন্দো বাংলাদেশ আমরা যে রাস্তা তৈরি করছি, ইন্দো বাংলাদেশ-নেপাল-ভুটান প্রত্যেকটাই যুগ-যুগান্তকারী প্রোগ্রাম। গতবার যখন হাসিনা যে এসেছিলেন, যদি তারা বিদ্যুৎ চাল তখন বাংলা আরো বিদ্যুৎ দিতে রাজি আছে। বাংলাদেশ ভাল থাকলে আমরা ভাল থাকি, আমরা ভাল থাকলে বাংলাদেশ ভাল থাকে।’

ভিডিও কনফারেন্সে ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে যেসব বৈদ্যুতিক লাইন রয়েছে তা দুদেশের সম্পর্কের সোনালী প্রতীক হয়ে আছে। এছাড়া নতুন রেল সংযোগ ও বিদ্যুৎ আমদানি-রফতানির মাধ্যমে দু দেশের সম্পর্ক আরো দৃঢ় হলো।

৫শ’ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ দেয়ার জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী ধন্যবাদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক রক্ষার বিষয়ে ভবিষ্যতেও দলমত নির্বিশেষে বাংলাদেশ একসঙ্গে কাজ করবে।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password