গণপরিবহন সংকট:ভোগান্তিতে চট্টগ্রামবাসী

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: আগস্ট ৪, ২০১৮)

 নিরাপদ সড়ক ও বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী হত্যার বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ৬ষ্ঠ দিনে গড়িয়েছে।  রাস্তায় কম গণপরিবহন।  এবার যেন পরিবহন শ্রমিক ও মালিকরা অঘোষিত ধর্মঘট পালন করছেন।  আর এতে ভোগান্তি বেড়েছে চট্টগ্রাম বাসী ও অফিসগামী মানুষের।

তবে চট্টগ্রাম নগরীতে কিছু বাস চলতে দেখা গেছে।  সেগুলোতেও উঠতে হচ্ছে অনেক কষ্ট করে।  সড়কে রিকশা, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস চলাচল করছে।  সেগুলোও অনেক কম।  বেশি ভাড়াও দিয়ে অনেক দুর্ভোগে অফিস ও গন্তব্যে পৌঁছাতে হচ্ছে।

শনিবার (০৪ আগস্ট) সকাল থেকে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে পরিবহন সংকটে দুর্ভোগ বেড়ে চলেছে।

বহদ্দারহাট মোড়ে গণপরিবহণের অপেক্ষায় থাকা রবিউল হোসেন রাসেল নামে এক যাত্রী জানান, যথারীতি আ্রগাবাদে অফিসে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বেরিয়েছি।  কিন্তু রাস্তায় এসে দেখি কোন বাস নেই।  শত শত যাত্রী বহদ্দারহাট মোড়ে বাসের অপেক্ষায় রয়েছে।  কোন বাস নেই।  এদিকে, অফিসের সময়ও পার হয়ে যাচ্ছে।  খুব সমস্যায় পড়ে গেলাম।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুলাই কুর্মিটোলায় জাবালে নূর পরিবহনের বাসচাপায় শহীদ রমিজ উদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট স্কুল অ্যান্ড কলেজের দুই শিক্ষার্থী নিহত হয়।

প্রধানমন্ত্রী নিহত দুই শিক্ষার্থীর প্রত্যেক পরিবারকে ২০ লাখ টাকা করে মোট ৪০ লাখ টাকার পারিবারিক সঞ্চয়পত্র দেন।  বাসচাপায় শহীদ রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নামেন।  বুধবার চতুর্থ দিনের মাথায় শিক্ষার্থীদের আন্দোলন ঢাকার পর চট্টগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে পড়ে।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password