লোহাগাড়ার সেই পরিবারটি কী সুবিচার পাবে না?

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: জুলাই ১৬, ২০১৮)

গত রমজানের ঈদের পরের দিন  লোহাগাড়ার কলাউজানের সুশিক্ষিত পরিবারটি বাপ-দাদার কবর জেয়ারত করার জন্য বাড়ীতে যায়। ওৎ পেতে থাকে শত্রুরা । সুযোগ পেয়ে ধাড়াঁলো চাইনিছ কুড়াল, দা -ছুরি  ও কিরিছ দিয়ে তাদের কোপ ও এলোপাতারী আঘাত করে তাদের । ক্ষত বিক্ষত হয়ে ৫ জন লোহাগাড়া হাসপাতালে স্হানীয়দের সহযোগিতায়  প্রাথমিক চিকিৎসা নেয় । তন্মধ্যে ২জন লোহাগাড়া হাসপাতালে চিকিৎসা নিলেও বাকী ৩ জন আলী আহমদ, কামাল উদ্দিন, আবদুল শুক্কুর  গুরুতর জখম হওয়ায় চিকিৎসা  নিতে হয় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে  ।

সূত্রমতে,  ১৭ জুন ২০১৮ আনুমানিক সন্ধ্যা ৭টার দিকে পশ্চিম কলাউজান বাংলাবাজারের উত্তর পার্শ্বে একটি বাড়ীতে এই রক্তক্ষয়ী ঘটনা ঘটে। জানা গেছে ওই ঘটনায় বদরুল করিম চৌধুরী, আলী আহমদ, কামাল উদ্দিন, আবদুল শুক্কুর ও আবু তৈয়ব সশস্ত্র হামলার শিকার হন। প্রতিপক্ষ শক্রুরা তাদের সাথে থাকা টাকা ছিনিয়ে নেয় ও মোবাইল সেটগুলো ভেঙ্গে দেয়।আহতেরা শরীরের বিভিন্ন অংশে  মাথা, কপাল ,ঠোঁঠে রক্তাক্ত হন।

স্হানীয় ইয়াবা বকুলের ইন্ধনে ও প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় সশস্ত্র অবস্হায় এইসব ঘটনা ঘটায়।ইয়াবা বকুল জেল জরিমানা ভোগকারী এক দুচ্চরিত্রাহীন মহিলা বলে স্হানীয় সুত্রে খবর পাওয়া গেছে।এ ব্যাপারে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রাট আদালতে বদরুল করিম চৌধুরী বাদী হয়ে সি আর মামলা নং ১৭১/২০১৮ দায়ের করেন। এই বিষয়ে মুঠোফোনে জানতে চাইলে ওসি লোহাগাড়া বাদী -বিবাদীর সাথে যোগাযোগ করে খবর সংগ্রহ করার  কথা বলে ব্যস্ততা দেখিয়ে লাইন কেটে দেন।কথা বলে মনে হলো ওসি সাহেবের এই বিষয়ে ভাবার সময় নেই  মোটই, অন্য কাজেই প্রচণ্ড ব্যস্ত তিনি।

 

 

 

 

 

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password