বাংলাদেশ, বুধবার, ২৪শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ১১ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

লামায় মাটি চাপায় একই পরিবারের তিনজন নিহত

উদ্ধার অভিযানে সেনাবাহিনী ফায়ার সার্ভিস
ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাড়ানোর জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর আহ্বান
মো.কামরুজ্জামান, লামা : ৪ জুলাই
লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নে কালাইয়া পাড়ায় পাহাড় ধসে মাটি চাপায় শিশু ও নারীসহ একই পরিবারের ৩ জন নিহত হয়েছে। ৩ জুলাই দুপুরে প্রবল বর্ষনে পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলো, মোঃ হানিফ (৩০), তার স্ত্রী রাজিয়া বেগম (২৫) ও কন্যা শিশু হালিমা বেগম (৩)।
স্থানীয়রা জানান, টানা কয়েক ঘন্টা ভারী বর্ষণে পাহাড় ধস নামলে এ এই প্রাণ হানীর ঘটনা ঘটে । ঘরের পার্শ্বে খানিক দুর থেকে পাহাড় ধসে বসত ঘরে উপর মাটি চাপা পড়লে পিতা-মাতাসহ এক শিশু প্রাণ হারায়। জানাযায় ঘটনার সময় ওই পরিবারের সবাই মধ্যাহ্নভোজ সেরে ঘরের মধ্যে ঘুমিয়ে ছিলেন।দূর্ঘটনার সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি, আলীকদম জোন কমান্ডার লে: কর্ণেল মাহবুবুর রহমান পিএসসি, উপ-অধিনায়ক মেজর আবদুল কাদের, লামা ক্যাম্প অধিনায়ক মেজর ইসরাত আহমেদ, লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল দূর্ঘটনা স্থলে পৌঁছে উদ্ধার অভিযান তদারকি করেন। এর আগ থেকে সেনা সদস্যরাসহ লামা ফায়ার সার্ভিস কর্মিরা উদ্ধার অভিযান চালাতে থাকেন। জানাগেছে, নিহত পরিবারের জন্য পার্বত্য মন্ত্রীর পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক ৯০ হাজার টাকা, সেনা বাহিনীর পক্ষ থেকে দাফন খরছ ও জরুরী খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হয়।

পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রীর প্রতিনধি মোহাম্মদ ইসমাইল জানান, গভীর রাত পর্যন্ত থেকে নিহত তিন জনের লাশ দাফন করে তারা ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন। তিনি আরো জানান, এই ঘটনা সম্পর্কে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি ক্ষতিগ্রস্থদের খবরা খবর নিচ্ছেন। তিনি নিহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন, একই সাথে জেলার সংশ্লিষ্ট সবাইকে যে কোন ধরণের দুর্বিপাকে পতিত লোকদের পাশে দাড়ানো ও ক্ষতি এড়িয়ে যাওয়ার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় প্রদক্ষে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
দূর্ঘটনা এড়িয়ে থাকার বিষয়ে উপজেলা প্রশাসন মাইক যোগে স্থানীয়দেরকে ঝুঁকিপূর্ণ স্থান থেকে সরে আসার আহ্বান জানান।

আরো খবর

Leave a Reply