মোহরায় নিজ অর্থায়নে সড়ক সংস্কার করলেন নজরুল ইসলাম

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: জুন ২৪, ২০১৮)

 

চট্টগ্রাম মহানগরীর অন্যতম ব্যস্ত সড়ক আরাকান সড়ক। প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ গাড়ি এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করে। বিশেষ করে উত্তর চট্টগ্রাম কাপ্তাই, রাঙ্গুনিয়া, অন্যদিকে দক্ষিণ চট্টগ্রাম পটিয়া বোয়ালখালীসহ মোহরা, চান্দগাঁও এর লক্ষ জনসাধারণের আরাকান সড়ক হয়ে মূল শহরে আসা যাওয়ার পথ। দীর্ঘদিন যাবত পানি উন্নয়ন বোর্ড (ওয়াসা’র) পাইপলাইন বসানোর কাজ এবং অতি বর্ষায় আরাকান সড়কের বর্তমান অবস্থা অত্যন্ত শোচনীয়। গাড়ী চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এই রাস্তার বেহাল অবস্থা চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এর চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামের নজরে আসলে তিনি সাময়িক ভাবে যান চলাচল সুগম করে জনসাধারণে কষ্ট লাঘবের জন্য তার ছোট ভাই চট্টগ্রাম মহানগর যুবনেতা ওয়েল গ্রুপের পরিচালক সৈয়দ নজরুল ইসলাম কে নির্দেশনা দেন। তারই প্রেক্ষিতে সৈয়দ নজরুল ইসলাম তার রাজনৈতিক সহযোদ্ধা নেতাকর্মীদের নিয়ে ভাঙ্গা রাস্তা মেরামত করতে নেমে পড়েন।
সৈয়দ নজরুল ইসলামকে এই ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি জানান, ‘আমি মোহরার সন্তান। আরাকান সড়ক দিয়ে উত্তর-দক্ষিণ-মহানগর মিলে প্রায় লক্ষাধিক মানুষ এই রাস্তা দিয়ে চলাফেরা করে। আমি নিজেও প্রতিদিন এই রাস্তা দিয়ে আসা যাওয়া করি। দীর্ঘদিন ধরে ওয়াসার খুঁড়াখুঁড়ি এবং অতি বর্ষায় রাস্তার অবস্থা অত্যন্ত নাজুক। জনদুর্ভোগ চরম পর্যায়ে চলে গেছে। অনেকেই ফোন করে জিজ্ঞেস করে আমার বড় ভাই সিডিএ চেয়ারম্যান যেন রাস্তাটা মেরামত করে দেয়। কিন্তু আসল ব্যাপার হলো এটা সিডিএ’র আওতাভুক্ত কোন কাজ নয়। সাড়ে তিন বছর আগে এই আরাকান সড়ক সিডিএ নতুনভাবে কাজ করে তা সিটি কর্পোরেশনকে হস্তান্তর করে। দীর্ঘদিন যাবত ওয়াসার কাজের কারনে খুঁড়াখুঁড়িতে রাস্তার অবস্থা বেহাল। ওয়াসার কাজ ও শেষ। কিন্তু কোন সংস্থা ন্যূনতম রাস্তা যান চলাচল করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় আমার বড় ভাইয়ের নির্দেশে আমি আমার রাজনৈতিক সহযোদ্ধা বিশেষ করে চান্দগাঁও, মোহরা ছাত্র ও যুব প্রতিনিধিকে সাথে নিয়ে নিজস্ব অর্থায়নে মেরামত করার জন্য নেমে পড়ি এবং সবাইকে নির্দেশনা দেয় যেন জনদুর্ভোগ যাতে লাঘব হয় সে জন্য বড় বড় গর্ত গুলো ভরাট করে দেয়। আমি একজন আওয়ামী লীগের কর্মী হিসেবে দল ও সংগঠনের প্রতি নিজের দায়বদ্ধতা থেকে জনদুর্ভোগ লাঘবে নিজের সীমাবদ্ধতার মধ্যে কাজ করার চেষ্টা করেছি। এবং সবার প্রতি অনুরোধ থাকবে যেন অনতিবিলম্বে আরাকান সড়ক সম্পূর্ণভাবে মেরামত করা হয়।”

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password