৬ দফা বাঙালি জাতির মুক্তির সনদ

  প্রিন্ট
(Last Updated On: জুন ৬, ২০১৮)

আজ ৬ জুন  বুধবার বিকাল ৪টায় চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লা মোজাহের ভবন হলে বাঙালির মুক্তির সনদ ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস শীর্ষক মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও সাহিত্য চর্চা পরিষদের উদ্যোগে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি মো: সালাহ্ উদ্দিন লিটন এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এম. নুরুল হুদা চৌধুরী’র সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান। আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা ও লেখক কালাম চৌধুরী, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চারনেতা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহিম, ১৪ দল নেতা স্বপন সেন, শারদাঞ্জলি ফোরামের সভাপতি মাস্টার অজিত কুমার শীল, দক্ষিণ জেলা কৃষকলীগ নেতা মো: ইলিয়াছ, কালারপুল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুর রহিম চৌধুরী, বৃহত্তর চট্টগ্রাম ডেন্টাল এসোসিয়েশনের সভাপতি ডা: জামাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম সাহিত্য পাঠচক্রের সাধারণ সম্পাদক আসিফ ইকবাল, জয় বাংলা শিল্পী গোষ্ঠীর সভাপতি সজল দাশ, নারীনেত্রী সোমিয়া সালাম, রুমকি সেনগুপ্তা, শিক্ষক প্রভাত কান্তি দাশ, রতন ঘোষ, রুকুনুদ্দিন জয়, ব্যবসায়ী এজাজুল হক চৌধুরী, টেরিবাজার কাপড় ব্যবসায়ী নুরুল কবির, মো: ফকরুল ইসলাম শিমুল, রাশেদ মাহমুদ পিয়াস প্রমুখ। প্রধান অতিথি জননেতা মফিজুর রহমান বলেন, বাঙালি চেতনায় মুক্তির সনদ ৬ দফার মধ্যদিয়ে স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব তরান্বিত হয়। ৪৭ সালের লাহোর চুক্তিতে দ্বৈতশাসন না থাকলেও শায়িত্ব শাসনের স্পষ্টতা ছিল। কিন্তু পশ্চিম পাকিস্তানীরা পূর্ব পাকিস্তানীদের সবসময় নির্যাতন শোষণ আর শাসন করতে থাকে। যার ফলশ্রুতিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৬ দফা পেশ করতে বাধ্য হয়। পরবর্তীতে ৬ দফা বাঙালি জাতির মুক্তির সনদে পরিগণিত হয়।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password