ল্যাপটপ ব্যবহার না শিখলে মন্ত্রিত্ব বাতিল নেপালে

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: জুন ১, ২০১৮)

বর্তমান যুগ তথ্য প্রযুক্তির যুগ। আর তথ্যপ্রযুক্তিকে আরো বেশি সহজসাধ্য করেছে ল্যাপটপ। কিন্তু নেপালের অনেক মন্ত্রীই ল্যাপটপে স্বচ্ছন্দ নন। তাই মন্ত্রীদের ল্যাপটপ ব্যবহারে অভ্যস্ত হয়ে উঠকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা অলি।অন্যথায় পদ হারাবেন মন্ত্রীরা। বুধবার ঘোষণা দিয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রী কেপি শর্মা ল্যাপটপ চালানো শেখার জন্য মন্ত্রীদের ৬ মাস সময় বেঁধে দিয়েছেন। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কোনো মন্ত্রী ল্যাপটপ চালানো শিখতে ব্যর্থ হলে, তাকে পদচ্যুত করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। খবর কাঠমান্ডু পোস্ট, টাইমস অব ইন্ডিয়া।
কে পি শর্মা গত ফেব্রুয়ারিতে দ্বিতীয় বারের মত প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর দফতর আগামী ছয় মাসের মধ্যে ‘পেপারলেস’ করে গড়ে তোলা হবে।
নেপালের কাঠমাণ্ডুতে বুধবার জাতীয় শিক্ষকদের সংগঠনের ১২তম সাধারণ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, মন্ত্রী পরিষদের কেউ যদি ল্যাপটপ চালাতে না পারে, তাহলে তাকে পদচ্যুত করা হবে।
তিনি আরও বলেন, আমি এরই মধ্যে মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকে বলেছি, আমি ছয় মাসের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী দপ্তরকে কাগজবিহীন করব। বৈঠকের প্রোগ্রাম ও আলোচ্যসূচি ল্যাপটপ ব্যবহার করে ঠিক করা হবে। এ সময় নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ল্যাপটপ চালানো শিখতে সহকারীদের কাছ থেকে সহযোগিতা নেয়ারও পরামর্শ দেন তিনি।
নেপালের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ৬ মাসের মধ্যে কেউ ল্যাপটপ চালানো শিখতে না পারলে, আমরা তাকে বিদায় জানাব। এ সময় তাকে একটা ল্যাপটপ দেব, যাতে করে তিনি পরবর্তী মেয়াদের জন্য ল্যাপটপ চালানো শিখতে পারেন।
তিনি আরও বলেন, আমার সরকারের লক্ষ্য নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নেপালকে তথ্যপ্রযুক্তি বান্ধব দেশে পরিণত করা।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password