শার্শায় সেফটি ট্যাংকিতে কাজ করতে গিয়ে নিহত ২

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: মে ২৭, ২০১৮)

 

বেনাপোল প্রতিনিধি

শার্শায় সেফটি ট্যাংকিতে কাজ করতে গিয়ে ইমন (১৮), ও বিপ্লব হোসেন (৩২) নামের দুই নির্মান শ্রমিক নিহত হয়েছে। এ সময় আরও ২জন শ্রমিক গুরুতর আহত হয়েছে। নিহত ইমন শার্শার সম্মন্ধকাটি গ্রামের কুতুব উদ্দিন এর ছেলে এবং বিপ্লব হোসেন একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক এর ছেলে। আহতরা হচ্ছে, উপজেলার দঃ বুরুজ বাগান গ্রামের এরশাদ আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (৪২) ও নুরুল ইসলামের ছেলে অলিয়ার রহমান (৩৬)। আহতদেরকে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তী করা হয়েছে।
এলাকাবাসী জানান, শার্শার দক্ষিন বুরুজ বাগান গ্রামের মাছ ব্যবসায়ী মকর আলীর বাড়িতে নব-নির্মিত সেফটি ট্যাংকির মধ্যে সেন্টারিংয়ের কাঠ-বাশ খুলতে রবিবার সকাল সাড়ে ৮টায় ৪জন শ্রমিক কাজ শুরু করে। সেফটি ট্যাংকির মুখ খুলেই ভিতরে তারা কাজ শুরু করলে গ্যাসে আক্রান্ত হয়ে ৪জন আহত হয়ে পড়ে। এসময় বাড়ির মালিকের চিৎকারে আসে পাশের লোকজন ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে শার্শা উপজলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক ইমনকে মৃত ঘোষনা করে। পরে আহত বিপ্লব’র অবস্থার অবনতি হলে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে চিকিৎধীন অবস্থায় মারা যায়।
শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ রনি জানান, হাসপাতালে আনার আগেই ইমনের মৃত্যু হয়েছে। আহত বিপ্লবের অবস্থা আশঙ্খাজনক।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password