বাংলাদেশ, সোমবার, ২২শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ৯ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

সরকারি কোষাগার থেকে পৌর কর্মচারীদের বেতন ও পেনশনের দাবীতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি

সরকারি কোষাগার থেকে পৌর কর্মচারীদের বেতন ভাতা ও পেনশনের দাবীতে মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেছে বাংলাদেশ পৌর কর্মকর্তা কর্মচারী এসোশিয়েশন চট্টগ্রাম বিভাগ ।
৩ এপ্রিল সোমবার সকাল এগারটায় নগরীর কোর্ট ভবনের মূল ফটকে মানববন্ধন শেষে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করেন ।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন বাংলাদেশের বর্তমানে ৩২৬টি পৌরসভায় প্রায় ৩৪ হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী চাকুরী করে আসছে। পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একজন মানুষের জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত প্রাপ্ত সেবাগুলো প্রদান করলেও পৌরসভার তহবিল সংকটের কারণে মাস শেষে প্রায় ৮০% পৌরসভায় বেতন হয় না। সময়মত বেতন না পেয়ে মানবেতর জীবনযাপন করে। চাকুরী শেষে প্রভিডেন্ড ফান্ড ও গ্র্যাচুইটির টাকাও সময়মত না পেয়ে পরিবারের নিকট হেয় প্রতিপন্ন হয়। সরকারি অন্যান্য কর্মচারীদের চেয়েও বেশি অনেকটা ষোল ঘন্টা দায়িত্ব পালন করেও বেতন ভাতার কোন নিশ্চিয়তা নেই। একজন কর্মকর্তা বা কর্মচারীকে তার পরিবারের মৌলিক পাওনা মিটাতে হিমশিম খেতে হয়।
মানব বন্ধনে বক্তারা অন্যান্য সরকারি কর্মচারীর ন্যায় বেতন ভাতা ও পেনশন সরকারি কোষাগার থেকে পাওয়ার দাবী জানান ।
বাংলাদেশ পৌর কর্মকর্তা-কর্মচারী এসোসিয়েশনের চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সভাপতি আবুল কালাম এর সভাপতিত্বে সংগঠনের চট্টগ্রাম বিভাগীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুল করিমের সঞ্চালনে মানব বন্ধনে বক্তব্য দেন সহ সভাপতি বেলাল আহমদ খান,যুগ্ন সম্পাদক মো. জাহিদ হোসেন,সাংগঠনিক সম্পাদক খোরশেদ আলম,জনসংযোগ সম্পাদক কামাল আহমেদ, প্রচার সম্পাদক মো. রিয়াজ উদ্দিন রালে,সহ প্রচার সম্পাদক মো. আবুল খায়ের,মহিলা সম্পাদক ফারজানা লাকী,চাদঁপুর জেলা কমিটির সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ . ইউছুফ,
লামা পৌরসভার তানফিজুর রহমান, রাঙ্গামাটি পৌরসভার মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর,লাকসাম পৌরসভার মো. জমির উদ্দিন,লক্ষীপুর পৌরসভার সামশুদ্দিন আহমেদ প্রমুখ ।

আরো খবর

Leave a Reply