লামায় আগুনে ১০ দোকান পুড়ে ছাই : ক্ষয়ক্ষতি প্রায় ৩৫ লাখ

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: মার্চ ৬, ২০১৮)

ফরিদ উদ্দিন:
বান্দরবানের লামা পৌরসভার চেয়ারম্যান পাড়া এলাকায় সোমবার রাত ২টায় বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুনে ১০টি দোকান সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। প্রাথমিক ভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩৫ লাখ টাকা বলে ধারনা করা হচ্ছে। লামা ফায়ার সার্ভিসের দমকল বাহিনী ৩ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।
আগুনে পুড়ে যাওয়া দোকান গুলো হল, মো. মোস্তফা (মুদির দোকান), রিয়াদ উদ্দিন শিপন (ফার্ণিচার), আব্দুল মতিন (মুদির দোকান),মো. সোহেল (বিস্কুট ডিলার),মো. নাছির (মুদির দোকান),রাসেল (ফার্ণিচার দোকান), নুর ইসলাম (কয়লার দোকান),শফিকুল ইসলাম (অটো রিক্সার গ্যারেজ),জসিম (সিএনজি গ্যারেজ) ও ফাহিম (ফার্ণিচার দোকান)।
স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, রাত ২টায় হঠাৎ করে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট হতে দোকানে আগুন লেগে যায়। গভীর রাত হওয়ায় আশপাশে কোন মানুষজন না থাকায় মুহুর্তে আগুন নিয়ন্ত্রণে করা সম্ভব হয়নি। দোকান গুলো কাঠ ও টিনের হওয়ায় মুহুর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা চারপাশে ছড়িয়ে পড়লে ১০টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়। এ সংবাদ পেয়ে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও স্থানীয়রা ৩ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে সক্ষম হয়। এদিকে প্রতক্ষ্যদর্শী মুদি দোকানদার মোস্তাফার ছেলে মিলটন জানায়,রাত ২টার দিকে আমি ঘুমিয়ে ছিলাম হঠাৎ করে আমার বিছানায় আগুন দেখতে পেয়ে দোকানের বেড়া ভেগে পাশের পুকুরে ঝাপিয়ে পড়ে জীরন বাচাই,তার মতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের আগুন লেগেছে বলে দাবী করেন।
                                                                                                    অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্থদের লামা পৌরসভা থেকে ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন লামা পৌরসভার মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম। রাতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বান্দরবান জেলা পরিষদের সদস্য ফাতেমা পারুল, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. রফিক। এদিকে ভোরে লামা উপজেলা নিবার্হী অফিসার খিংওয়ানু অগ্নিকান্ড এলাকা পরিদর্শন করে সরকারী সহায়তা প্রদানের আশ্বাস দেয়।অপর দিকে লামা উপজেলায় সাবজোনের সেনাবাহিনী সদস্যরা এলাকা পরিদর্শন করেন এবং সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন এবং ক্ষতিগ্রস্তদের কে সমবেদনা প্রকাশ করেন।
এ ব্যাপারে,লামা বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক প্রকৌশলী অলিউল ইসলাম জানান,আমাদের মূল লাইন থেকে অগ্নিকান্ড সুত্রপাত হয়নি,তাদের ব্যবহারিক সংযোগ থেকে এ অগ্নিকান্ড হতে পারে মনে করেন।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password