রোহিঙ্গার বিষয়ে বাংলাদেশের পাশে থাকবে ইইউ

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৮)

রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) বাংলাদেশের পাশে থাকবে বলে জানিয়েছেন ইইউ রাষ্ট্রদূত রেনসে টেরিংক। তিনি বলেন, ‘আমরা বাংলাদেশকে সহায়তা দিচ্ছি। এই সহায়তা অব্যাহত থাকবে।’

আজ সোমবার পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে তার কার্যালয়ে সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ইইউ রাষ্ট্রদূত।

সাংবাদিকদের পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘আজ ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে মিয়ানমার ইস্যুতে আলোচনা হয়েছে।’ ইইউ পার্লামেন্ট সদস্যদের সম্প্রতি ঢাকা সফরের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘তারা ঢাকা সফর করেছেন। আমি আশা করি, তারা আগামী মাসে তাদের পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট দেবেন।’

এদিকে আজকে ইইউভুক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা ব্রাসেলসে মিয়ানমার বিষয়ে আলোচনার পরে তারা সম্মিলিতভাবে ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফেডেরিকো মোঘোরিনিকে বলেছেন, মিয়ানমার সামরিক বাহিনীর যেসব সিনিয়র কর্মকর্তা ভয়ঙ্কর ও নিয়মতান্ত্রিকভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন করেছেন, তাদের তালিকা তৈরি করার জন্য। যেন তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা যায়।

এছাড়া কফি আনানের নেতৃত্বে গঠিত রাখাইন কমিশনের রিপোর্ট পূর্ণ বাস্তবায়নের ওপর জোর দিয়ে ইইউ পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা বলেছেন, রোহিঙ্গাদের নিরাপদ ও সম্মানজনক প্রত্যাবাসনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতি মিয়ানমারকে আহ্বান জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের ২৫ আগস্ট থেকে রাখাইনে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হামলা শুরু হলে রোহিঙ্গারা দলে দলে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা শুরু করে। এখন পর্যন্ত প্রায় সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। এর আগে থেকে প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে অবস্থান করছিল।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password