রাবি শিক্ষক তাহের হত্যার এক যুগ

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৮)

অপরাধীদের দ্রুত বিচার দাবি শিক্ষক শিক্ষার্থীদের
রাবি প্রতিনিধি:
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড.এস তাহের আহমেদ এর হত্যাকান্ডের এক যুগ পেরিয়েছে। তবে অপরাধীরা শাস্তির আওতায় না আসায় হতাশা প্রকাশ করছেন বিভাগের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা। রোববার বিভাগের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, এবং কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের আয়োজনে শোকসভায় হতাশা প্রকাশ করেন তারা।
বিভাগের শিক্ষকরা বলেন, ২০০৬ সালের ১লা ফেব্রুয়ারী দিবাগত রাত্রে অধ্যাপক ড. তাহের আহমেদকে বিশ্ববিদ্যালয়স্থ বাসভবনে নৃশংসভাবে হত্যা করে ম্যানহোলে ফেলে রাখা হয়। ২০০৮ সালে নি¤œ আদালতে দোষী সাব্যস্ত হয়ে ড. মিয়া মহিউদ্দিনসহ সালাম, নাজমুল, জাহাঙ্গীরের ফাঁসির রায় হয় এবং ২০১৩ সালে হাইকোর্টে ড. মিয়া মহিউদ্দিন ও জাহাঙ্গীরের ফাঁসির রায় বহাল থাকে এবং সালাম ও নাজমুলের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের রায় হয়। প্রায় ৫-৬ বছর যাবৎ এ রায় নিস্পত্তির জন্য সুপ্রিম কোর্টের এপিলেট ডিভিশনে অপেক্ষমান রয়েছে। আমরা চাই অপরাধীরা যেন শাস্তির আওতায় আসে। হাইকোর্টের বিচারের রায় নিষ্পত্তি করে দ্রুত কার্যকর করার ব্যাপারে জোর দাবি জানান।
এদিকে হত্যাকান্ডের প্রতিবাদ করে বিচারের দাবিতে একটি শোকর‌্যালির ও দোয়া মাহফিলের অনুষ্ঠিত হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় সভাপতি খন্দকার ইমামুল হক, জীব ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম ফারুকী, পরিবেশ বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ড. সুলতান-উল-ইসলাম, অধ্যাপক ড. হামিদুর রহমান,অধ্যাপক ড. মুশফিক আহমদ, এবং অধ্যাপক ড. মো. শফিকুর আলম প্রমুখ।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password