সংস্কারের অভাবে পাউবোর রক্ষা বাঁধের  ব্লক ধ্বসে পড়ছে

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: জানুয়ারি ১০, ২০১৮)

কে.এম.রিয়াজুল ইসলাম,বরগুনা

সংস্কারের অভাবে উপকূলীয় অঞ্চল বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলার উত্তর বেতাগী গ্রামের বিষখালী নদীর পাড়ের পানি উন্নয়ন বের্ডের (পাউবোর) রক্ষা বাঁধের ব্লক ধ্বসে পড়ছে। ফলে ব্লক ধ্বসে বাঁধটি নদীতে বিলীন হতে আর সময়ের ব্যাপার মাত্র। ব্লক ধ্বসে যাওয়ায় এখানকার  ভাগ্যহত মানুষের কপাল পুড়ছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, সিডর,আইলায় ভেঙে যাওয়া রক্ষা বাঁধ স্থায়ীভাবে রক্ষার জন্য ২০১১ সালে আরো ব্লক তৈরী করে বাঁশ,বলি ও বস্তার চট রেখে গেছেন  সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। এর পর ওই ঠিকাদারের আর খোঁজ নেই। বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী বাঁধের ধ্বসে যাওয়া অংশ ১০ নভেম্বর‘২০১৬ সরেজমিনে  পরিদর্শন করেন। বাধেঁর ব্লক রক্ষার  জন্য ইতোমধ্যে গ্রামের বাসিন্দারা ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।
ভূক্তভোগীদের অভিযোগ বাধঁ মেরামতের নামে লক্ষ লক্ষ টাকা লুট হয়েছে। কপাল খুলে গেছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিস্ট কর্মকর্তা ও ঠিকাদার সিন্ডিকেটের।সরকার কাড়ি কাড়ি টাকা ঢেলেও, কাজের কাজ কিছুই হয়নি। টাকা কোথায় গিয়েছে? এ প্রশ্নই করছিলেন মো: শহীদুল ইসলাম বাবুল, মো: হুমায়ুন, মো: আফজাল হোসেন ও মোসা: সুরাইয়া বেগম। একই প্রশ্ন  মুখে মুখে ফিরছে আরো অনেক সাধারন মানুষের।
সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বাঁধের ব্লক ধ্বসে নদীতে  বিলীন হয়ে যাচ্ছে। ক্রমশ এর তীব্রতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। ব্লক ধ্বসে জোয়ারে লবনাক্ত পানি ঢুকে গাছপালা বিশেষ করে ফলজ বৃক্ষের পাতাগুলো পুড়ে আঙ্গার হয়ে গেছে। বাসিন্দারা পারছেনা ফসল ফলাতে। বিশেষ করে বর্ষ মৌসুমে বাসিন্দাদের প্রায়ই অভুক্ত কাটাতে হয়।
এ ব্যাপারে বরগুনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: মশিউর রহমান বলেন, প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সাথে ইতোমধ্যে যোগাযোগ করা হয়েছে। বেতাগী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব এবিএম গোলাম কবির বলেন, এখানকার মানুষের দ্রুত দুর্ভোগ লাঘবে আপ্রান চেস্টা চালাচ্ছি।
স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতা আবদুস সোবাহান জানান, সরকারি কর্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বিভিন্ন সময়ে যদিও বাঁধের ব্লক রক্ষার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন কিন্ত তাদের এ কথায় কেউ আশ্বস্ত হতে পারেছে না।
ভূক্তভোগি আব্দুর রব এখানকার ক্ষতিগ্রস্থ বাঁধের ব্লক রক্ষায় কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহনের জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের  সু-দৃষ্টির দাবি জানিয়েছেন।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password