ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছে বেতাগী সাব-রেজিষ্টার অফিসে কর্মরতরা

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: ডিসেম্বর ২, ২০১৭)

কে.এম.রিয়াজুল ইসলাম

বেতাগী নিজস্ব ভবনের অভাবে জীবনের  ঝুঁকি নিয়ে দাপ্তরিক কাজ করছে উপজেলা সাব-রেজিষ্টার অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা। প্রতি মুহুর্তে বিরাজ করছে তাদের মাঝে আতঙ্ক । উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানোর পরেও অবস্থা যেই-সেই।
জানাগেছে, সাব-রেজিস্টার অফিসটি নিজস্ব আধাপাকা অফিসগৃহটি সংস্কারের অভাবে ব্যবহার অনুপোযোগি হয়ে পড়ায় ১৯৯১ সালে স্থানান্তরিত হয়ে সাবেক থানা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে দীর্ঘদিন ধরে অফিসের কার্যক্রম চালাচ্ছে।
বর্তমানে এই অস্থায়ী অফিসটি মৃত্যুর ফাঁদে পরিনত হয়েছে। অফিস সহকারী মো: জাকির হোসেন অভিযোগ করেন, উপজেলা পর্যায়ে রাজস্ব আয়ের সরকারের অন্যতম উৎস সাব-রেজিস্টার অফিস। কিন্তু দুঃখের বিষয় অদ্যাবদী নিজস্ব কোন ভবন নির্মানের উদ্যোগ নেয়া হয়নি। ফলে ঝুঁকিপূর্ন ও অপরিসর ভবনে কাজ করতে হচ্ছে।
সরজমিনে দেখা যায়, একতলা এ ভবনটিতে ৪ টি কক্ষের মধ্যে সাব-রেজিষ্টার, অফিস সহকারী, টিসি মহড়ার, মহড়ার, কলনবীশসহ অফিসে ১৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারি কর্মরত রয়েছে। রয়েছে এজলাস, রেকর্ড রুম। রুমের অভাবে  গাদাগাদী করে সকলকে একত্রে অফিস করতে হচ্ছে।
রেজিস্ট্রেশনের কাজে আসা দাতা-গৃহীতা ও স্বাক্ষীগনের বসার আলাদা কোন স্থান না থাকায় তাদের কে ঘন্টার পর ঘন্টা বিশেষ করে মহিলাদের অফিসের বারান্দায় দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। উপজেলা সাব- রেজিষ্টার মো: নূর আলম সিকদার জানান, জরাজীর্ণ এ অফিসে জীবনের ঝুঁকিনিয়ে আতঙ্কের মধ্যে কার্যক্রম চালাচ্ছি। আমি যোগদানের পর এ বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি। তারা অচিরেই ভবন নির্মানের আশ্বাস দিয়েছেন।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password