পিলখানা হত্যাকান্ড শুধু বাংলাদেশে নয়, পৃথিবীর ইতিহাসে একটি জগন্য ও বর্বর ঘটনা -ডা. শাহাদাত হোসেন

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৭)

 

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, পিলখানা হত্যাকান্ড শুধু বাংলাদেশে নয়, পৃথিবীর ইতিহাসে একটি জগন্য ও বর্বর ঘটনা। ঐ ঘটনায় সেনাবাহিনীর ৫৭জন অফিসারকে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়েছে। পিলখানা হত্যা কান্ডের আট বছর অতিবাহিত হলেও এখনও পর্যন্ত বিচার কার্য শেষ হয়নি। পিলখানা হত্যা দিবসকে জাতীয় শোক দিবস হিসেবে ঘোষনা করার দাবি জানিয়ে এই হত্যা কান্ডের পিছনে কারা জড়িত ছিল তাদের শ্বেতপত্র প্রকাশ করার আহবান জানান। তিনি নিহত সেনা কর্মকর্তাদের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং তাদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেন।

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, পিলখানা হত্যাকান্ড একটি নরকীয় ঘটনা। এই ঘটনার মাধ্যমে আমাদের জাতিকে কলঙ্কিত করেছে। এই ঘটনার সাথে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, বর্তমান অবৈধ সরকার সম্পূর্ণ স্বৈরাচারী কায়দায় দেশ শাসন করছে। মানুষের ভোটাধিকার, সভা সমাবেশের অধিকার, কথা বলার স্বাধীনতা আজ বুলণ্ঠিত। দেশের মানুষ আজ দিশাহারা। সরকারের অন্যায় অত্যচার ও দুর্নীতির কথা দেশের জনগণকে জানানোর সভা সমাবেশের যে মৌলিক অধিকার তাও পুলিশ দিয়ে বন্ধ করে দিচ্ছে।
অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা মোঃ মিয়া ভোলা, এম.এ. আজিজ, মোঃ আলী, এস.এম. সাইফুল আলম, শেখ নুরুল্লাহ বাহার, কাজী বেলাল উদ্দিন, ফরিদ আহমেদ বিএ, ইস্কান্দর মির্জা, সবুক্তগীন ছিদ্দিকী মুক্কী, সামশুল আলম, ইকবাল চৌধুরী, মোশারফ হোসেন দিপ্তি, আর.ইউ.চৌধুরী শাহীন, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, আনোয়ার হোসেন লিপু, জাহাঙ্গীর আলম দুলাল, আব্দুল মান্নান, ফাতেমা বাদশা, মনোয়ারা বেগম মনি, জি.এম. আইয়ুব খান, মোঃ সালাহ উদ্দিন, সাবেক কাউন্সিলর মাহবুবুব আলম, কামরুল ইসলাম, গাজী মোঃ সিরাজ উল্লাহ, সিহাব উদ্দিন মোবিন, এইচ.এম. রাশেদ খান, মঞ্জুর আলম মঞ্জু, মোশারফ হোসেন ডিপটি, মঞ্জুর রহমান চৌধুরী, আকতার খান, এস.এম. জি আকবর, মোঃ সালাহ উদ্দিন, হাজী মোঃ মহসিন, সাবেক কাউন্সিলর মোঃ সেকান্দর, শরফরাজ কাদের রাসেল, মঞ্জুর আলম মঞ্জু, জাহেদুল হাসান, হাজী মোঃ বেলাল হোসেন, হাজী মোঃ তৈয়ব, দিদারুর রহমান লাভু, এস.এম ফরিদুল আলম, জাহাঙ্গীর আলম, আশরাফ উদ্দিন, এম.এ. হালিম বাবলু, নুর হোসেন, এস.এম. মফিজ উল্লাহ, জামাল আহমেদ, আলহাজ্ব জাকির হোসেন, আব্দুল্লাহ আল ছগির, তৌহিদুস সালাম নিশাদ, সাইফুর রহমান শপথ, হাজী মোঃ ইলিয়াছ,এম.আই. চৌধুরী মামুন, সাব্বির আহমেদ প্রমুখ।
গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে পুলিশী বাধা উপেক্ষা করে নগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেনের নেতৃত্বে ভি.আই.পি টাওয়ার হইতে কাজীর দেউরী, নুর আহাম্মদ সড়ক হয়ে দলীয় কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password