বাংলাদেশ, শনিবার, ১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ৭ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

সরকার চাইলে আগাম নির্বাচনে আমরা প্রস্তুত: সিইসি

সরকার চাইলে আগাম নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য নির্বাচন কমিশন (ইসি) প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নুরুল হুদা। তিনি বলেছেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তারা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ এবং এ ব্যাপারে কোনো আপস করবেন না।

বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সিইসি এসব কথা বলেন। এর আগে বিকালে সিইসির সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত রেনসিয়ে টিয়েরিংক।

২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হয়নি- শুরু থেকে দাবি করে আসছে বিএনপি। তারা সংসদ ভেঙে দিয়ে আগাম নির্বাচনেরও দাবি করে আসছে। তবে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ এই দাবি নাকচ করে দিয়ে বলেছে, সংবিধান অনুযায়ী যথাসময়ে নির্বাচন হবে।

স্বাভাবিক হিসাবে আগামী বছরের ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হতে পারে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন। এটা নিয়ে নির্বাচন কমিশন একটি রোডম্যাপও তৈরি করেছে। ইতোমধ্যে রাজনৈতিক দল, সুশীল সমাজসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার লোকদের সঙ্গে সংলাপও সেরেছে কমিশন।

আগাম নির্বাচনের জন্য কতটুকু প্রস্তুত জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘আগাম নির্বাচনের বিষয়টা সরকারের ওপর নির্ভর করে। সরকার চাইলে সেটা করা যাবে। নির্বাচনের জন্য তো ৯০ দিন সময় থাকে। তারা যদি আগাম নির্বাচনের জন্য বলে, তখন আমরা পারবো। আমাদের ব্যালট বক্স আছে। শুধু পেপার ওয়ার্কগুলো লাগবে।’

প্রবাসীদের ভোটাধিকারের বিষয়ে সিইসি বলেন,‘পোস্টাল ব্যালটে খুব একটা সাড়া পাওয়া যায় না। তাই আমি বলেছি যে, তিনশ আসনের নির্বাচনের জন্য আমাদের লোকজনের বিদেশে বাক্স নিয়ে যাওয়া সম্ভব না। তবে নিয়মটি এখনো বলবৎ আছে। যদি ইভিএম চালু হয়, তখন হয়তো এটা করা হবে।’

নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘এটা সম্ভব না। আমরা প্রস্তুত না। কিছু রাজনৈতিক দল এটির বিরোধিতা করেছে, সে জন্য আমরা এ নিয়ে কোনো বিতর্কে যাবো না।’

আরো খবর

Leave a Reply