বাংলাদেশ, শুক্রবার, ২৬শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং, ১৩ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

পাথরঘাটায় মুক্তিযোদ্ধাকে হুমকি, থানায় ডায়েরী

কে.এম.রিয়াজুল ইসলাম,বরগুনা

বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলায় আ. ছালাম মুন্সি নামে এক মুক্তিযোদ্ধাকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই মুক্তিযোদ্ধা তার জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে রবিবার  (২৬ নভে¤¦র) পাথরঘাটা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছেন (১১৫৪)।

আ. ছালাম পাথরঘাটা উপজেলার চরদুয়ানী ইউনিয়নের জ্ঞানপাড়া গ্রামের মৃত হাচান আলী মুন্সির ছেলে। তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট।

জিডির বিবরণে জানা যায়, ২৫ নভে¤¦র শনিবার রাতে মুক্তিযোদ্ধা আ. ছালাম মুন্সির জ্ঞানপাড়ার নিজ বাড়িতে দুটি মোটরসাইকেলে ৬জনের মধ্যে ২ জনের মাথায় হেলমেট ও অপর ৪ জনের ছাই রঙের মাফলার পরা লোক দরজার খুলতে বলে। এ সময় হেলমেট পরিহীত দুজন তার ঘরে ঢুকে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যূনালে সিআর-১২২/২০১৭ ন¤¦র মামলার সাক্ষী প্রত্যাহার করতে বলে। সাক্ষী দিলে তার জীবন রাখা কষ্টকর হবে। ওই জিডিতে আরও বলা হয়, আ. ছালাম  আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে ওই মামলার সাক্ষী দিলে তার ঘরবাড়ি পুড়িয়ে দিবে তারা।

মুক্তিযোদ্ধা আ. ছালাম বলেন, মান্নান হাওলাদার একজন ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা। সে আমার ওয়ার্ডের লোক। সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আ. মান্নান হাওলাদারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যূনালে একটি মামলা চলে। ওই মামলায় আমি ৯ন¤¦র সাক্ষী। আমাকে সাক্ষী না দিতেই আ. মন্নান আমাকে এ হুমকি দিয়েছে।

এ বিষয় জানতে চাইলে অভিযুক্ত সাবেক কমান্ডার আ. মান্নান হাওলাদার বলেন, আমি অনেকদিন ধরে ঢাকায় অবস্থান করছি। আমার বিরুদ্ধে ওই মামলাটি প্রমান করার জন্যই মিথ্যা জিডি করা হয়েছে। ঘটনাটি মিথ্যা, এটা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র।

পাথরঘাটা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম জিয়াউল হক বলেন, আ. ছালাম নামে ওই মুক্তিযোদ্ধার আবেদনটি জিডি আকারে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি তদন্ত করা হবে।

 

আরো খবর

Leave a Reply