স্পিনফাঁদে পড়ে ভারত ধ্বংসস্তুপ

  প্রিন্ট
(সর্বশেষ আপডেট: ফেব্রুয়ারি ২৪, ২০১৭)

অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের শিকারের জন্য স্পিন ফাদ পেতে ছিল ভারত। কিন্তু তারা কি আর তখন জানত নিজেদের ফাঁদে পড়ে নিজেরাই শিকার হয়ে যাবেন। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা ভারত সফরের আগে তাই বেশ সতর্কই ছিল অস্ট্রেলিয়া। স্বাগতিক ভারতকেই একবাক্যে ফেভারিট মেনে নিয়েছিলেন প্রায় সবাই। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে কিন্তু দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। দুর্দান্ত বোলিং করে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের নাজেহাল করেছেন অস্ট্রেলিয়ান স্পিনাররা। ঘরের মাঠে ভয়াবহ ব্যাটিং বিপর্যয়ের শিকার হয়ে ভারতের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে গেছে মাত্র ১০৫ রানে।
নিজ দেশে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টে ভারতের এমন দুর্দশা শেষবারের মতো দেখা গিয়েছিল ২০০৪ সালে। সেবার মুম্বাইয়ে ভারতের ইনিংস শেষ হয়েছিল ১০৪ রানে। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে এটাই ভারতের সবচেয়ে কম রানে গুটিয়ে যাওয়ার রেকর্ড। অল্পের জন্য সেই রেকর্ডটি নতুন করে গড়ার লজ্জা থেকে রেহাই পেয়েছে বিরাট কোহলির দল। তারপরও ভয়াবহ এই ব্যাটিং বিপর্যয় নিশ্চিতভাবেই বেশ পীড়া দেবে ভারতের সমর্থকদের।
পুনেতে সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে অস্ট্রেলিয়া করেছিল ২৬০ রান। স্পিন সহায়ক উইকেটে দাপট দেখিয়েছিলেন ভারতের তিন স্পিনার রবীচন্দ্রন অশ্বিন, রবীন্দ্র জাদেজা ও জয়ন্ত যাদব। ২০৯ রানে ৯ উইকেট হারানোর পর মিচেল স্টার্কের ৬৩ বলে ৬১ রানের ঝড়ো ইনিংসটির কল্যাণেই স্কোরটা সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিজেদের জালেই আটকা পড়েছে ভারত। দুর্দান্ত বোলিং করে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের দিশেহারা করে দিয়েছেন বাঁ-হাতি স্পিনার স্টিভ ও’কিফ। ক্যারিয়ারসেরা বোলিং করে মাত্র ৩৫ রানের বিনিময়ে নিয়েছেন ছয়টি উইকেট। ছয়টি উইকেট পেয়েছেন লাঞ্চ বিরতির পর প্রান্ত বদল করে।
মাত্র ১০৫ রানে গুটিয়ে গেলেও ভারতের শুরুটা অবশ্য খুব একটা খারাপ হয়নি। স্কোরবোর্ডে ৯৪ রান জমা হয়েছিল মাত্র তিনটি উইকেট হারিয়ে। এরপর মাত্র ১১ রান সংগ্রহ করতেই ভারত হারিয়েছে সাতটি উইকেট। প্রথম সারির তিন ব্যাটসম্যান মুরালি বিজয়, চেতেশ্বর পূজারা ও অধিনায়ক বিরাট কোহলি খুব বেশিক্ষণ উইকেটে থাকতে না পারলেও চতুর্থ উইকেটে ৫০ রানের জুটি গড়ে ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিলেন লোকেশ রাহুল ও অজিঙ্কা রাহানে।
কিন্তু মধ্যাহ্নবিরতির পর এক ওভারে তিন উইকেট নিয়ে ভারতকে চাপের মুখে ফেলে দেন ও’কিফ। প্রথমে ৬৪ রান করে ফিরে যান রাহুল। রাহানে আউট হয়েছেন ১৩ রান করে। আর ঋদ্ধিমান সাহা খুলতে পারেননি রানের খাতা। এই ধাক্কাটাই আর সামলে উঠতে পারেনি ভারত। পরবর্তী আট ওভারের মধ্যেই একে একে সাজঘরের পথ ধরেছেন অশ্বিন, জয়ন্ত যাদব, রবীন্দ্র জাদেজা ও উমেশ যাদব। ও’কিফের বলে দুর্দান্ত দুটি ক্যাচ ধরেছেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব।
ভারতের এই ১০৫ রানের অর্ধেকেরও বেশি এসেছে লোকেশ রাহুলের ব্যাট থেকে। ৬৪। দুই অঙ্কের কোটা পেরোতে পেরেছেন আর মাত্র দুজন। ওপেনার মুরালি বিজয় (১০) ও রাহানে (১৩)। শূন্য রানে আউট হয়েছেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা কোহলি।
কয়েক দিন আগেই টানা ১৯ ম্যাচ অপরাজিত থাকার নতুন রেকর্ড গড়েছে ভারত। ২০১৫ সালের আগস্ট থেকে একটানা জিতেছে ছয়টি টেস্ট সিরিজ। দেখার বিষয় ভারতের ভাগ্যে এই টেস্টে কি আছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়া দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করছে। দলীয় সংগ্রহ ৫৭/২। ক্রিজে স্মিথ ২৯ ও হ্যান্ডসকম্ব ১৭ রানে অপরাজিত আছেন । সৌজন্য ইত্তেফাক

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password