হেমন্তের বৈরিতা

  প্রিন্ট
(Last Updated On: অক্টোবর ২১, ২০১৭)

   রাহাত ভাই

লংকার ঝাল আর পেঁয়াজের ঝাঁঝে —
সরিষা তেল মাখা মুড়ির পাত্রে,
যদি কেটে যায় এ বেলা এ প্রহর–
যাক না কেটে প্রিয়া এস-বস মোর পাশে,

হেমন্তের এমন দিনে কেন বৈরী শ্রাবণের আবির্ভাব?
না গো এ যেন আশীর্বাদ-
তোমার আমার মুখোমুখি বসার,
রেখে ফেলে সব কাজ
একই পাত্রে যুগল হস্তে মহা মিলন সম্ভার,

আজিকার এমন বাদল দিনে-
প্রণয়ের প্রথম ধাপ মনে পড়ে,
আজ হতে কত বৎসর আগে যেন-
পথের ধারে খড়ের চালের ছোট্ট কুঠিরে বসে-
কথা হয়েছিল তোমার সাথে।

কথা হয়েছিল-কথা ছিল–
প্রতিক্ষার প্রহর গুণে গুণে আরো সময় করিব পার-
আরো পাঁচ বৎসর।
কিন্তু- তার আর সয়নি তর।

বলে অস্ফুট সুরে গৃহিণী আমার-
তুলি,তামিদের আগমন হত কবে-এধরায়,
যদি অপেক্ষায় -অপেক্ষায় যেত কেটে শ্বাশত রজনী,
তাই সময়ের কাজ সময়েই হয়েছে সারা,
বিধির বিধান সবই মঙ্গলের জন্য গড়া।

০ Comments

Leave a Comment

Login

Welcome! Login in to your account

Remember me Lost your password?

Lost Password