বাংলাদেশ, বুধবার, ১৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং, ৮ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ।

গোপাল পাড়াবাসীর গণসংবর্ধনা সভায় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম

দীর্ঘ ২৮ বছর ধরে হেরিটেজের অন্তভুক্ত গোপাল পাড়াকে হেরিটেজ মুক্ত করায় চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালামকে গণ সংবর্ধনা প্রদান করেন গোপালপাড়া বাসিন্দরা। আজ শনিবার সংবর্ধনার জবাবে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম বলেন, আমার প্রকৃত পরিচয় আমি একজন রাজনৈতিক কর্মী। একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে চট্টগ্রামের গণমানুষের কল্যাণে কাজ করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন বলে আমি অত্যন্ত কৃতজ্ঞ। তাঁর আস্থা নিয়ে আমি এখন সারা চট্টগ্রামের ভাগ্য উন্ন্য়নের দায়িত্ব নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। এই গোপাল পাড়া ছিল প্রাচীন চট্টগ্রাম শহরের প্রাণকেন্দ্র। এখানকার বাসিন্দাদের ব্যাক্তি মালিকানাধীন জমিকেও প্রাচীন নিদর্শন হিসেবে আওতাভুক্ত করে রাখায়, নিজেদের বাড়ী-ঘরের উন্নয়নে যে প্রতিবন্ধকতা ছিল, তা দুর করতে আমি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছি। তাতে গোপাল পাড়ায় স্থায়ী বাসিন্দারা উপকৃত হবেন। সিডিএ’র দায়িত্ব নিয়ে আমি কেবল চট্টগ্রামের ভৌত আবকাঠামো উন্নয়নই নয়, চট্টগ্রামবাসীর জীবনযাত্রা ও মানবিক উন্নয়নেও কাজ করে যাচ্ছি। আগামী পাঁচ বছরে চট্টগ্রাম এগিয়ে যাবে ৫০ বছর। প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে বিশ্বের অন্যতম উন্নত দেশে পরিনত করার যে ঘোষনা, তার জন্য যে রোডম্যাপ তিনি করেছেন তাতে চট্টগ্রামের উন্নয়নকে বিশেষ প্রাধান্য দেয়া হয়েছে। দেশের অর্থনীতির স্বর্ণদুয়ার চট্টগ্রাম হবে বিশ্বের আধুনিকতম নগরীর অন্যতম। একটি সঠিক সিদ্ধান্ত যেমন কারো জীবনে পৌষ মাস নিয়ে আসে তেমনি ভূল সিদ্ধান্ত সারা জীবনের জন্য সর্বনাশ ডেকে নিয়ে আসে। নির্বাচনে প্রতিনিধি নির্বাচনে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ায় জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে এক অপ্রতিরোধ্য গতিতে। বাংলাদেশ বিশ্বে এখন উন্নয়নের রোল মডেল। আগামী নির্বাচনেও সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য তিনি সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।
ওয়ার্ড কাউন্সিলর সলিম উল্লাহ বাচ্চুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন সিডিএ বোর্ড সদস্য কাউন্সিলর গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, কাউন্সিলর তারেক সোলাইমান সেলিম, মহিলা কাউন্সিলর আঞ্জুমান আরা বেগম, নিলু নাগ, সিডিএ প্রধান প্রকৌশলী জসিম উদ্দিন, টাউন প্ল্যানার শাহিনুল ইসলাম খান, মুক্তিযোদ্ধা হরিপদ ঘোষ, নগর আওয়ামলীলীগ নেতা গৌরাঙ্গ ঘোষ, বজল আহম্মদ, ইসমাইল মনু, রফিক আহম্মদ, বজল আহমেদ, সুজিত ঘোষের পরিচালনায় সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পংকজ রায়, মো. কায়সার উদ্দিন, রঞ্জিত ঘোষ, স্বদেব ঘোষ, বিপু ঘোষ বিলু, রঞ্জিত ঘোষ, বিজয় ঘোষ, রুমা দে, মো. সুজন, অমল ঘোষ, রাহুল ঘোষ, যত ঘোষ, বিম্বজিৎ ঘোষ বিপ্লব ঘোষ, সলিম হাজি প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

আরো খবর

Leave a Reply